ইউটিউবে শর্টফিল্ম তৈরির নামে অশ্লীল ভিডিও ধারণ, অতঃপর...

  • ২৭-Jul-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

ফরিদপুর শহরের হাউজিং এস্টেট এবং নগরকান্দা বাজারে অভিযান চালিয়ে শর্টফিল্ম তৈরির নামে অশ্লীল ভিডিও ধারণ, প্রচার এবং তা দিয়ে প্রতারণা ও ব্লাকমেইল করার অভিযোগে দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৮।

শুক্রবার (২৭ জুলাই) ভোরে তাদেরকে ওই এলাকা থেকে আটক করা হয়। এসময় পরিস্থিতির শিকার এক নারীকেও উদ্ধার করে র‌্যাব।

র‌্যাব-৮ ফরিদপুর সিপিসি-২ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন জানান, মাসুম নামে ওষুধ কোম্পানির এক প্রতিনিধি র‌্যাবের কাছে অভিযোগ করেন- তিনি শর্ট ফিল্ম ও নাটক নির্মাণ করে এমন একটি গ্রুপের সাথে কাজ করতেন। দুটি শর্ট ফিল্মে অভিনয়ও করেছেন।

কিন্তু ওই নির্মাতারা দুই দিন আগে তাকে জিম্মি করে একটি মেয়ের সাথে খারাপ ভিডিও নির্মাণ করতে বলেন, আর না হলে ১ লাখ টাকা দিতে হবে। যদি তা না করা হয় তাহলে ওই মেয়ের সাথে অবৈধ সম্পর্ক আছে বলে তার সাথে বিয়ে দিয়ে দেয়া হবে। পরে মাসুম ৪৪ হাজার টাকা ম্যানেজ করে দিয়ে জিম্মি দশা থেকে মুক্তি পেয়ে বিষয়টি র‌্যাবকে জানান।

র‌্যাব তদন্ত করে জানতে পারে, এই চক্রটি শর্ট ফিল্ম ও নাটক নির্মাণের আড়ালে আসলে উত্তেজনাপূর্ণ ও অশ্লীল ভিডিও নির্মাণ করে এবং তা ইউটিউবে ‘আরটিভি বাংলা’ নামে একটি চ্যানেলে অশ্লীলভাবে প্রকাশ করে। যা অনেক সময়ই অভিনেতা-অভিনেত্রীরা জানে না।

পরে এই অভিনয়ে আগ্রহী ওই ছেলে-মেয়েদের ব্ল্যাকমেইল করা হতো। মেয়েদের শারীরিক সম্পর্কে বাধ্য করা হতো আর ছেলেদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নেয়া হতো। না দিলে খারাপ ভিডিও বানিয়ে নেটে ছেড়ে দেয়া হবে বলেও হুমকি দিতো তারা।

র‌্যাব অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার পর অভিযানে নামে। প্রথমে ফরিদপুর শহরের হাউজিং এস্টেট এলাকার একটি ফ্ল্যাট থেকে রাসেল তালুকদার নামে এক যুবককে আটক করে। পরে তার দেয়া তথ্য ভিত্তিতে নগরকান্দা বাজার এলাকা থেকে সোহেল রানা নামে আরো এক যুবককে আটক করা হয়। তবে মুক্তিপণ আদায় চক্রের মূল হোতা মেহেদী হাসান ওরফে আশিক এসময় পালিয়ে গেছে। এসময় জিম্মিদশা থেকে আমেনা নামে বিবাহিত এক নারীকেও উদ্ধার করা হয়।

এদের কাছ থেকে দুটি ল্যাপটপ, ক্যামেরা, মাইক্রোফোন, খেলনা পিস্তল ও মুক্তিপণ নেয়া ৪৪ হাজার টাকার মধ্যে ৩৬ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী মাসুম ও উদ্ধার তরুণী বাদী হয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান এই কর্মকর্তা।

Ads
Ads