শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী করাই মুখ্য কাজ: দোলন

  • ১১-Dec-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হলেন সেটা মুখ্য নয়, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছে শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী করাই মুখ্য। এজন্য নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে জেতাতে সবাইকে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ কৃষক লীগের সহসভাপতি ও ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য আরিফুর রহমান দোলন।

মঙ্গলবার ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় এক নির্বাচনী সভায় তিনি এই আহ্বান জানান। বেলা ২টার দিকে কুশুমদী কুটুম বাড়ি কফি হাউজে উপজেলা আওয়ামী লীগ এই সভার আয়োজন করে।

আরিফুর রহমান দোলন বলেন, ‘প্রার্থীর দোষ বা গুণ বিচার করে আমি মনে করি প্রার্থী শেখ হাসিনা। তা না হলে নির্বাচনের যে অগ্রযাত্রা তা ব্যাহত হবে। শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী করতে হবে, এটি আমাদের মাথায় রাখতে হবে। এ বিষয়ে একমত হলে প্রার্থীর বিষয়ে কোনো আলোচনার দরকার নেই। ৩০ ডিসেম্বরের পরে এগুলো নিয়ে বিশ্লেষণ করতে হবে। এখন আমাদের মানুষের কাছে যেতে হবে, উন্নয়নের পক্ষে ভোট চাইতে হবে।’

দোলন বলেন, ‘মানুষকে বোঝাতে হবে কেন নৌকা মার্কায় ভোট দেবে। ভোট ঢাকাতে নয়, ভোট হবে মাঠে। সে জন্য ভোটের জন্য মাঠে যেতে হবে, ৩০ তারিখে শতভাগ ভোট নিশ্চিত করতে হবে। আওয়ামী লীগ যে উন্নয়ন করেছে মানুষ ভুল করবে না।’

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করতে হবে, আগে সংখ্যাগরিষ্ঠ সংসদ সদস্যদের নির্বাচিত করতে হবে। এরপরে সংসদ সদস্যদের কাছে আমাদের দাবি-দাওয়া করতে পারব। সবকিছু প্রার্থীর ওপর চাপিয়ে দেয়া যাবে না, আমাদের নিজেদেরও কন্ট্রিবিউট করতে হবে।’

দোলন বলেন, ‘অতীতে যদি আলফাডাঙ্গা নৌকাকে ৮৫ থেকে ৯০ ভাগ ভোট দিতে পারে, এবার কেন ৯৫ থেকে ৯৭ ভাগ ভোট দেবে না। আগে যোগাযোগব্যবস্থা খারাপ ছিল, মোবাইল ফোন ছিল না, রাস্তাঘাট ছিল না। আগে যেমন গতি ছিল, এখন সেই গতিটাকে আরও বাড়তে হবে। আমরা সবাই মিলে এটা করব। বিএনপি-জামায়াত জঙ্গি, তাদের হাত থেকে বাঁচতে গেলে এটা আমাদের করতে হবে।’

কৃষক লীগ সহসভাপতি বলেন, ‘দেশের যে উন্নয়ন, এর ধারাবাহিকতা রাখতে আমাদের এই গতি ধরে রাখতে হবে। প্রতিবেশী দেশ ভারতের সাথে আমাদের কী চমৎকার সম্পর্ক, এই সম্পর্ক ধরে রাখতে আমাদের এটা করতে হবে। ’

দোলন বলেন, ‘এখন কিন্তু আমাদের এই দেশের মাটি পাকিস্তানের আইএসআই সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি হিসেবে কেউ ব্যবহার করতে পারে না। সেই জন্য এই সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না থাকলে আবার দেখবেন ভারতের সাথে সম্পর্ক নষ্ট হবে, সেই পাকিস্তানি জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসআই আবার এই দেশে সন্ত্রাসের ঘাঁটি গাড়বে। বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বে আবারও খারাপ হবে।’

কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান বলেন, ‘শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই আমরা অনেক সুখে শান্তিতে নিরাপদে আছি। এই কারণে আমাদেরকে কাজ করতে হবে। সবকিছুতে আমরা প্রার্থীর দিকে তাকিয়ে থাকলে পিছিয়ে যাব। আমাদের পিছিয়ে থাকা যাবে না।’

আরিফুর রহমান বলেন, ‘আমরা যদি বিএনপি-জামায়াত থেকে দূরে থাকতে চাই, তাদেরকে ক্ষমতার বাইরে রাখতে চাই, তাহলে আমাদের আর বিকল্প চিন্তার কারণ নেই। আমি মনোনয়ন পাইনি, তারপরও নৌকা মার্কার জন্যে আপনাদের কাছে ছুটে আসছি। আমাদের জন্য মেসেজ হলো আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে প্রত্যেক নেতাকর্মীকে মূল্যায়নের সুযোগ আছে। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এলে সব সম্ভব হবে। এ কারণে আমাদের কাজ করে যেতে হবে।’

সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম আকরাম হোসেন। সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক নূরুল বাশার মিয়া। এসময় সাবেক সচিব হেমায়েত উদ্দিন তালুকদার, ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এম এম জালাল উদ্দিন আহমেদ,  সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবু হোসেন তালুকদারসহ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।

Ads
Ads