খালেদার আসনে ধানের শীষে লড়বেন ড. কামাল!

  • ২০-Oct-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গৃহীত পদক্ষেপগুলো থেকে পরিষ্কার হচ্ছে, যতই তারা ৭ দফা বা ১১ দফার কথা বলুক, ঐক্যবদ্ধ থেকে নির্বাচনে যাওয়াই এ মুহূর্তে তাদের লক্ষ্য। আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট অবশ্যই অংশগ্রহণ করবে। নির্বাচনে অভিন্ন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দল। এছাড়া গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। ঐক্যফ্রন্টের একাধিক সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছে।

ঐক্যফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ বলছে, তারা সরকারের কোনো ফাঁদে পা দেবে না এবং অবশ্যই নির্বাচনে যাবে। নির্বাচনে গেলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দল অভিন্ন প্রতীকে নির্বাচন করবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আর অভিন্ন প্রতীক হিসেবে বাছাই করা হয়েছে ধানের শীষ।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ধরেই নিয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন না। এমনটা ধরে নিয়েই তারা ড. কামাল হোসেনকে জোটের আহ্বায়ক করেছে। দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত হয়েছে, অভিন্ন প্রতীকে অংশ নেওয়া এই নির্বাচনে ড. কামাল হোসেন খালেদা জিয়ার আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। উল্লেখ্য, বগুড়া ও ফেনীসহ খালেদা জিয়া প্রত্যেক নির্বাচনে ৫টি আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। খালেদা জিয়ার এই আসনগুলো নির্বাচনে জয়লাভের জন্য ঝুঁকি কম হওয়ায় ফেনী অথবা বগুড়ার দুটি আসন থেকে ড. কামাল হোসেন নির্বাচন করবেন। এছাড়া ঐক্যফ্রন্টের অন্যান্য নেতা যাঁদের নির্বাচনে জেতার কোনো সম্ভাবনা নেই তাঁদেরকে খালেদা জিয়ার অন্যান্য আসনগুলো থেকে দাঁড় করানোর চিন্তাভাবনা করছে বিএনপি।

অর্থ্যাৎ বিভিন্ন দাবিদাওয়া উত্থাপন করলেও প্রকৃতপক্ষে যুক্তফ্রন্ট বেশ জোরেসোরেই নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণ করছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন স্থানে সভা-সমাবেশের মাধ্যমে জনসমর্থন আদায়ের চেষ্টাও চালিয়ে যাচ্ছে নবগঠিত এই জোটটি।

Ads
Ads