আদর্শের কারণেই পরীক্ষায় ২০ নম্বর নিজেই বাদ দিতেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • ৩১-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

‘তৎকালীন ম্যাট্রিকুলেশন পরীক্ষায় বাংলায় একটা চ্যাপ্টার ছিলো, পাকিস্তান চ্যাপ্টার। পরীক্ষায় তার উপর ২০ মার্ক ছিলো। আমি সেই ২০ মার্কের প্রশ্নের উত্তর স্বেচ্ছায় ছেড়ে দিয়েছি। কারণ ঐ সামরিক জান্তা আইয়ুব খানের প্রশংসা, স্তুতি বাক্য আমার হাত দিয়ে লেখা সম্ভব নয়। আমি পাশ করেছিলাম, ফেলও তো করতে পারতাম। তবুও আমি আপোষ করিনি। এটাই আমার নীতি, আদর্শের প্রশ্নে সদা আপোষহীন।’

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শোক দিবসের আলোচনা সভায়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এভাবেই কথাগুলো বলেন শুক্রবার সন্ধ্যায়।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ধারণ করে রাজনীতি করতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 শুক্রবার নিজের সরকারি বাসভবন গণভবনে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

ছাত্রলীগের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তোমাদের জাতির পিতার আদর্শের রাজনীতি করতে হবে। কারণ ছাত্রলীগ হচ্ছে জাতির পিতার হাতে প্রতিষ্ঠিত একটি সংগঠন।’

বাংলাদেশের প্রতিটি অর্জনে ছাত্রলীগের ত্যাগ রয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা সংগঠনটির নেতাকর্মীদের জনগণের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানান।

শিক্ষাকে একজন ব্যক্তির ‘সবচেয়ে বড় সম্পদ’ আখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগের প্রত্যেক নেতাকর্মীকে আগে জ্ঞান অর্জনের নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, ‘এই জ্ঞান দিয়ে জাতির পিতার দেখানো আদর্শ অনুসরণ করে তোমাদের রাজনীতি করতে হবে।’

ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

Ads
Ads