জামায়াতের প্রার্থীরা থাকছেন নির্বাচনে

  • ১২-জানুয়ারী-২০১৯ ১২:৩০
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে জামায়াতে ইসলামীর প্রার্থীদের নির্বাচন করতে বাধা নেই বলে মত দিয়েছেন হাইকোর্ট।

নির্বাচনে জামায়াতের প্রার্থীদের মনোনয়ন বাতিল চেয়ে রিট আবেদনের শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার (২৭ ডিসেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদেশে একই সঙ্গে জামায়াতের ২৫ জনের প্রার্থিতা বহাল রাখার নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না -তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন।

আদালতে জামায়াত নেতাদের পক্ষে শুনানি করেন রুহুল কুদ্দুস কাজল। নির্বাচন কমিশনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. ইয়াসিন খান। আর রিটকারীপক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী তানিয়া আমীর।

আদেশের পর নির্বাচন কমিশনের আইনজীবী সাংবাদিকদের বলেন, “রুল বিবেচনাধীন থাকা অবস্থায় ২৫ জনকে নির্বাচনের অযোগ্য ঘোষণার আবেদন করা হয়েছিল রিটে। আদালত সে নির্দেশনা দেয়নি। ফলে ২৫ প্রার্থীর নির্বাচন করতে বাধা নেই।”

বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের মহাসচিব সৈয়দ রেজাউল হক চাঁদপুরী ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান নামের সংগঠনের সভাপতি হুমায়ুন কবিরসহ চার ব্যক্তি ওই আবেদন করেন। এর আগে ১৭ ডিসেম্বর এ নিয়ে ওই চার ব্যক্তি হাইকোর্টে রিট করেন। একই দিন ইসি সচিব বরাবর জামায়াতের২৫ নেতার প্রার্থিতা বাতিল করে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে একটি আবেদন দেন তাঁরা। রিটের ওপর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ১৮ ডিসেম্বর হাইকোর্টের অপর একটি দ্বৈত বেঞ্চ রুল দেন। একই সঙ্গে ২৫ নেতার সংসদ নির্বাচনে প্রার্থিতা বাতিল বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে চার ব্যক্তির ইসিতে করা আবেদন তিন কার্যদিবসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে ইসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়। এর ধারাবাহিকতায় ২৪ ডিসেম্বর ইসি জামায়াতের ২৫ নেতার প্রার্থিতা বাতিল বিষয়ে করা আবেদন নামঞ্জুর করে সিদ্ধান্ত দেয়।

Ads
Ads