কুবির কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ার বেহাল দশা

  • ৮-Nov-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: কুবি প্রতিনিধি ::

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের(কুবি) একমাত্র ক্যাফেটেরিয়া প্রতিষ্ঠার পর থেকে নানা অব্যবস্থাপনায় দিন কাটাচ্ছে।  এতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে ক্যাৃফেৃৃৃ তে খেতে অআসা সবার। বিশ্ববিদ্যালয়ের একমাত্র ক্যাফেটেরিয়া প্রতিষ্ঠার সাত বছর পার হলেও ক্যাফেটেরিয়া উন্নয়নে কোন ধরণের উদ্যাগ নেয়া হয়নি।

অনুসন্ধান করতে গিয়ে দেখা যায়, নানা সমস্যায় জর্জরিত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়া। খাদ্যে ভর্তুকি না থাকা, আসন সঙ্কট, পানির সমস্যা, অপরিচ্ছন্নতা, ওয়াশরুমের ব্যবহারে অনুপযোগিতা, বৈদ্যুতিক লাইনে সমস্যা ও অধিকাংশ বৈদ্যুতিক পাকা নষ্ট। এসবের মাঝে সবচেয়ে বেশী ভোগান্তি সৃষ্টি করছে পানির মোটরটি।

ক্যাফেটেরিয়ার পানি সরবরাহের একমাত্র মোটর টি ২ মাস ধরে নষ্ট। এতে খাবার পানি, বেসিন ব্যবহার, ওয়াশরুম ব্যবহারে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে ক্যাফেটেরিয়াতে খেতে আসা শিক্ষক শিক্ষার্থী সহ সবার। দুই মাস যাবত ক্যাফেটেরিয়ায় পানি সরবরাহের একমাত্র মোটর নষ্ট হয়ে আছে। ক্যাফেটেরিয়ার ম্যানেজার মহিউদ্দীন মজুমদার জানান, লোজ পাইপ দ্বারা বিজ্ঞান অনুষদ থেকে পানি এনে ভর্তি করা হয় ট্যাংক। এ ব্যাপারে প্রশাসনকে অবগত করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, নতুন মোটর লাগানো হবে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশ্বাস দিলেও সমাধানের কোন অগ্রগতি নেই। তিনি প্রশাসনের কাছে দ্রুত সমস্যা সমাধানের দাবি জানান।  

ক্যাফেটেরিয়ায় খেতে আসা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তানভীর আহমেদ খান বলেন, ক্যাফেটেরিয়া তে খাবার খেতে এসে প্রায় সময় দেখা যায় বেসিনে পাই নাই, অনেক সময় খাবার পানিও পাওয়া যায় না, শহর থেকে এসে ক্লাস করতে হয় বিধায় দুপুরে ক্যাফেটেরিয়ায় খেতে হয়। অনেক সময় বেসিনে পানি না থাকায় খাবার খেতে পারিনা, বাধ্য হয়ে বাইরের হোটেল থেকে খেতে হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, ক্যাফেটেরিয়ার পানি খাওয়ার অনুপযোগী। ৮ টি বেসিনের ৩টি বেসিন নষ্ট বাকিগুলোতেও পর্যাপ্ত পানি আসেনা। আবাসিক হলের বিভিন্ন শিক্ষার্থীরা রাতের খাবারও সংগ্রহ করে ক্যাফে থেকে। অনেক সময় সন্ধ্যার পর থেকেই বন্ধ হয়ে যায় ক্যাফেটেরিয়া। এছাড়াও ক্যাফেটেরিয়ায় পর্যাপ্ত আসন নাই, বেশীর ভাগ বৈদ্যুতিক পাকা নষ্ট, বাইরের হোটেলের তুলনায় খাবার দাম বেশী, মানও তত উন্নত নয় বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পাসের বাইরে হোটেলের খাবার আর ক্যাফেটেরিয়ার খাবারের দাম প্রায় একই জানিয়ে কয়েকন শিক্ষার্থী বলেন-' তাহলে আমরা কেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়াতে খেতে আসব।' ক্যাফের খাবারের মান বৃদ্ধি ও দাম কমানো এবং অভ্যন্তরীণ সমস্যা দূর করতে প্রশাসনের কাছে দাবী জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

Ads
Ads