বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটে সবাই শেষ

  • ৭-Nov-২০১৮ ১২:০০ pm
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

জয়পুরহাট শহরের আরামনগর মহল্লায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগে শিশুসহ একই পরিবারের আটজনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (৭ নভেম্বর) দিনগত রাতে এ দুর্ঘটনায় প্রথমে তিনজনের মৃত্যু হয়। দগ্ধ হন পাঁচজন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে পাঁচজনেরও মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- আবদুল মোমিন (৩৮), তাঁর স্ত্রী পরিনা বেগম (৩৩), তাঁর মা মোমেনা বেগম (৬২), বাবা দুলাল হোসেন (৭১), মোমিনের মেয়ে বৃষ্টি (১৪), যমজ মেয়ে হাসি ও খুশি (১২) এবং ছোট ছেলে নূর (৬)।

প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী আহসান ও রমিছা বলেন, আগুন দেখে আমরা এগিয়ে গিয়ে জানালা ভেঙে একই পরিবারের আটজনের মধ্যে শিশুসহ পাঁচজনকে বের করে আনতে পারলেও আগুনের তাপের কারণে বাকিদের বের করতে পারিনি।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস জানায়, রাতে মোমেনা বেগম বাসায় রাইস কুকারে রান্না করছিলেন। এ সময় বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় এবং পুরো বাড়ি পুড়ে গিয়ে সেখানেই তিনজন নিহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করায়। সেখান থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকায় স্থানান্তর করা হলে পথে আরো চারজন মারা যান। আবদুল মোমিনের বাবা দুলাল হোসেন বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

 

/কে 

Ads