ফোন করে রিজভীকে যা বললেন কোকোর স্ত্রী

  • ২১-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

নিজস্ব প্রতিবেদক
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর  সোমবার সকালেই সংবাদ সম্মেলন করার কথা ছিল। তবে সকালের একটি ফোনের পর তাঁর সেই সংবাদ সম্মেলন বাতিল হয়েছে। বিএনপি ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো জানিয়েছে, বেগম জিয়ার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথি সকালে রুহুল কবির রিজভীকে ফোন করেন।

রুহুল কবির রিজভীকে সংযত হয়ে কথা বলার নির্দেশ দিয়েছেন শর্মিলা রহমান সিঁথি। রিজভীকে তিনি বলেছেন, সংবাদ সম্মেলনে উত্তেজিত হয়ে আক্রমণাত্মক কথাবার্তা বলবেন না। হাস্যকর কোনো কিছুও বলবেন না।

রিজভীকে ফোনে সিঁথি আরও বলেন, আপনার কথাবার্তার অনেকের মধ্যে হাসির উদ্রেক করে, সিরিয়াসনেস নষ্ট হয়ে যায়। যে কথাই আপনি বলবেন, অত্যন্ত দায়িত্বশীলতার সঙ্গে বলবেন। আক্রমণাত্মক কথাবার্তা যতোটা বর্জন করার চেষ্টা করবেন। আপনি এমন কোনো কথা বলবেন না যাতে বিএনপির প্রতি মানুষের আস্থা নষ্ট হয়।

একই সঙ্গে খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া সংবাদ সম্মেলন করতে রিজভীকে নিষেধ করেছেন সিঁথি। বলেছেন, কোনো ইস্যু ছাড়া, জরুরি কোনো বিষয় ছাড়া যেন সংবাদ সম্মেলন না করা হয়। আর সংবাদ সম্মেলন করতে হলে সেখানে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বলতে হবে। তাঁর অনুমতি সাপেক্ষে রিজভীকে প্রতিটি সংবাদ সম্মেলন করতে হবে।

বিএনপির নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের স্থায়ী বাসিন্দা বলে পরিচিত রুহুল কবির রিজভী কারণে অকারণে সংবাদ সম্মেলন করেন বলে মনে করেন দলটির নীতি-নির্ধারকরা। তাঁর অযাচিত সংবাদ সম্মেলন এবং সেখানে হাস্যকর বক্তব্য আরও হাস্যকরভাবে উপস্থাপনের কারণে দলকেই হেয় প্রতিপন্ন করা হচ্ছে বলে মত বিএনপি নেতাদের। সম্প্রতি রিজভী ভারত বিরোধী নানা বক্তব্য দিয়ে দেশটির সঙ্গে বিএনপি নেতাদের সমঝোতার প্রক্রিয়াকে হুমকির মুখে ফেলেন। আবার খালেদা জিয়ার কারাবরণে সংবাদ সম্মেলনে রিজভীর অঝোর ধারায় কান্না বিএনপি নেতাদেরই বিরক্ত করেছে।  
 

Ads
Ads