ট্রাম্পের সঙ্গে কাজ করতে অনেক ভালোবাসি: সৌদি যুবরাজ

  • ৭-Oct-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: সীমানা পেরিয়ে ডেস্ক ::

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এক সমাবেশে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেয়ার সময় দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি আরবের প্রতি হুমকি দিয়ে বলেন, মার্কিন সামরিক বাহিনীর সহায়তা ছাড়া সৌদি সরকার বা রাজতন্ত্র দুই সপ্তাহও টিকতে পারবে না।

আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিশ্লেষকদের আশা ছিল, ঘনিষ্ট মিত্র হওয়া সত্ত্বেও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই হুমকি ও বিতর্কিত মন্তব্যের কড়া জবাব দিবে সৌদি আরব।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ব্লুমবার্গ পাবলিকেশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বক্তব্যের জবাবে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেছেন,‘আমি তার (ট্রাম্পের) সাথে কাজ করতে ভালবাসি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও ডোনাল্ড ট্রাম্প একসাথে কাজ করে মধ্যপ্রাচ্যে অনেক কিছু অর্জন করেছেন। বিশেষ করে উগ্রপন্থা, সন্ত্রাসবাদ এবং আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে অগ্রগতি অনেক।’

আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, মুহাম্মদ বলেন, 'দুই দেশের নেতার মধ্যপ্রাচ্যে অনেক অর্জন আছে। বিশেষত চরমপন্থা, চরমপন্থীর আদর্শ, সন্ত্রাসী এবং দায়েশের (ইসলামিক স্টেট অব ইরাক অ্যান্ড সিরিয়া) বিরুদ্ধে।’

এছাড়া মিত্র দেশের জন্য মতবিরোধ খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার এবং একে গ্রহণ করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন ৩৩ বছর বয়সী সৌদি যুবরাজ। তিনি বলেন, ‘যেকোনো বন্ধুরই ভালো ও খারাপ দিক থাকে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তোমার সম্পর্কেও শতকরা ১০০ ভাগ বন্ধুই ভালো বলবে না, এমনকি তোমার পরিবারও না। এজন্য ভুল বোঝাবুঝি হতে পারে। সুতরাং আমরা একে ওই ক্যাটাগরির মধ্যেই রাখি।’

গত বুধবার মিসিসিপি’র সাউথহ্যাভেনে এক সমাবেশে সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজকে উদ্দেশ করে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক সহায়তা ছাড়া সৌদি সরকার দুই সপ্তাহও টিকতে পারবে না।

ট্রাম্প বলেছিলেন, 'আমরা সৌদি আরবকে রক্ষা করি। আপনারা বলবেন তারা ধনী এবং আমি ওই বাদশাকে ভালোবাসি, বাদশা সালমান। কিন্তু আমি তাকে বলেছি 'বাদশা, আমরা আপনাকে রক্ষা করছি, আমাদের ছাড়া আপনি সেখানে (ক্ষমতায়) হয়তো দুই সপ্তাহও টিকতে পারবেন না, আপনার সামরিক বাহিনীর জন্য আপনাকে খরচ করতে হবে।’

Ads
Ads