বিশ্বে সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড়ের কবলে ফিলিপাইন

  • ১৫-Sep-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বিশ্বে বছরের সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড়ের কবলে পড়েছে ফিলিপাইন। ফিলিপাইন উপকূলে আঘাত হেনেছে সুপার তাইফুন ‘মাংকুত’। স্থানীয় সময় শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে এটি উত্তর ফিলিপাইনে সর্বপ্রথম আঘাত হানে।

এখন পর্যন্ত ঝড়ে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি খবর পাওয়া যায়নি। তবে সুপার টাইফুন মাংখুটে ৭ হাজারের মতো মানুষ নিহত এবং কয়েক লাখ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আগে ঝড়টির কারণে বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ২০৫ কিলোমিটার থেকে ২২৫ কিলোমিটার পর্যন্ত ওঠানামা করছিল।

বিবিসির প্রতিবেদন থেকে জানা যায় শনিবার ভোরের আগে দেশটির লুজান দ্বীপে সুপার টাইফুন ‘মাংখুট’ আঘাত হানলে বাড়ি-ঘর ভেঙে পড়ে এবং বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

ফিলিপাইনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় কাগায়ান প্রদেশে আঘাত হানা ঝড় মাংকুতের বর্তমান গতিবেগ ঘণ্টায় ২৭০ কিলোমিটার, যা সর্বোচ্চ ৩২৫ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, মাংকুত দক্ষিণ চীন সাগর হয়ে রোববার সকালে হংকং উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

সুপার তাইফুন মাংকুত শক্তি সঞ্চয় করে সর্বোচ্চ ক্যাটাগরি ৫ পর্যন্ত উঠতে পারে। বিভিন্ন এলাকায় ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এর আগে ২০১৩ সালে সুপার টাইফুন ‘হায়া’-র সময় ফিলিপাইনে ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখানো হয়েছিল।

দেশটির অন্তত ২৫টি প্রদেশে ঝড়ের সর্তকতা জারি করা হয়েছে। পর্যটকদের ভ্রমণেও সতর্কতা জারি করা হয়েছে। উপকূলের লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট দুদার্তে নিজের পূর্ব নির্ধারিত সফর বাতিল করেছেন।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, ম্যাংখুত এ বছরে সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়। ঘূর্ণিঝড়কবলিত এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাত ও ঝোড়ো হাওয়া বয়ে চলেছে। ফিলিপাইনের উপকূলীয় দ্বীপ লুজোনের বৈদ্যুতিক খুঁটি ও বাড়িঘর ঘূর্ণিঝড়ে ভেঙে গেছে। প্রায় ৪০ লাখের বেশি মানুষ সুপার টাইফুন ম্যাংখুতের কবলে পড়েছে।

সুপার টাইফুন মাংখুটে দেশটিতে দেশটির কাগায়ান, উত্তর ইসাবেলা, আপায়াও এবং আব্রা প্রদেশে তাদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪ নম্বর সতর্ক সংকেত জারি করা হয়েছে।

সর্বশেষ দেশটিতে ২০১৩ সালের মারাত্মক ঝড় সুপার টাইফুন হাইয়ান আঘাত হানে। সেময়ও ৪ নম্বর সতর্ক সংকেত জারি করেছিল দেশটি।

 

অনলাইন/কে 

 

Ads
Ads