ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এবার মুখ খুললেন আরও এক কর্মকর্তা

  • ৬-Sep-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: সীমানা পেরিয়ে ডেস্ক ::

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অধীনে কর্মরত গোটা প্রশাসনই তাঁর পক্ষপাতমূলক নীতি ও খারাপ আচরণের কারণে হতাশ। নিউইয়র্ক টাইমসের এক সম্পাদকীয়তে এমনটাই বলেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সিনিয়র কর্মকর্তা। বিবিসি এ তথ্য প্রকাশ করেছে। 

নিউইয়র্ক টাইমসের সম্পাদকীয়তে ওই লেখক বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের  নীতিহীনতা এবং অদ্ভুত মানসিকতার কারণেই  তিনি অসচেতন ও বেপরোয়া সিদ্ধান্তগুলো নিতে পারেন।

প্রকাশিত সম্পাদকীয়র কঠোর সমালোচনা করেছেন ট্রাম্প। তিনি নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক লেখককে ‘ফালতু’ এবং নিউইয়র্ক টাইমসকে ‘জাল’ সংবাদপত্র হিসেবে অভিহিত করেছেন।

ট্রাম্পের প্রেস সেক্রেটারি ওই লেখককে কাপুরুষ হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন তাঁর অবশ্যই পদত্যাগ করা উচিৎ।

নিউইয়র্ক টাইমস এক বিবৃতিতে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তার পক্ষাবলম্বন করে জানিয়েছে, ‘আমরা তাঁর লেখা প্রকাশ করতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত। এই লেখা ট্রাম্প প্রশাসনে কী ঘটছে, তা জনগণকে বুঝতে সাহায্য করবে।

পুলিৎজার পুরস্কার জয়ী মার্কিন সাংবাদিক বব উডওয়ার্ডের একটি বই নিয়ে যখন আলোচনার ঝড় উঠছে, ঠিক তখনই ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুললেন সিনিয়র ওই কর্মকর্তা। উডওয়ার্ড তাঁর বইয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য তুলে ধরেছেন। ‘ফেয়ার: ট্রাম্প ইন দ্য হোয়াইট হাউস’ নামের বইটি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ হওয়ার এক সপ্তাহ আগেই এর একটি কপি বার্তা সংস্থা এপির হাতে আসে। এরপরই ট্রাম্প সম্পর্কে তাঁর অধীনস্থদের নেতিবাচক মনোভাব প্রকাশ পেতে থাকে। হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ জন কেলি প্রেসিডেন্টকে নির্বোধ বলেছেন এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে ওই বইয়ে। এছাড়া ট্রাম্প প্রশাসনের আরও কয়েকজন কর্মকর্তার মন্তব্য বইয়ে উঠে এসেছে, যা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে হোয়াইট হাউসে।

Ads
Ads