যে কারণে একসঙ্গে বিষপান করলো তিন ছাত্রী!

  • ২৮-Jul-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

পাবনার ঈশ্বরদীর বাঁশেরবাদা বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির তিন ছাত্রী একসঙ্গে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। তাদের মধ্যে বর্ষা খাতুন নামে এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত বর্ষা উপজেলার দাপুনিয়া ইউনিয়নের চরসাহাদিয়ার গ্রামের কবি শেখের মেয়ে। অন্যরা হল একই গ্রামের তালেব হোসেনের মেয়ে ববিতা খাতুন (১৪) ও কুবের দাসের মেয়ে সঙ্গীতা দাস (১৪)। গত বৃহস্পতিবার তিন বান্ধবী একসঙ্গে বিষপান করে।

বিষপানে অসুস্থ ববিতা খাতুন ও সঙ্গীতা দাস জানায়, বিজ্ঞান ও অংক পরীক্ষার ফল খারাপ হওয়ায় তিন বান্ধবী যুক্তি করে বিষপান করে।

স্থানীয়রা জানান, একসঙ্গে তিন বান্ধবীর বিষপানের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

পল্লী চিকিৎসক আব্দুস সালাম জানান, খবর পেয়ে প্রাথমিক অবস্থায় তিনজনের পেটে পাইপ ঢুকিয়ে বিষমুক্ত করার চেষ্টা করা হয়। পরে বর্ষার অবস্থার অবনতি হলে পরিবারের লোকজন দ্রুত তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। শনিবার সকালে সেখানেই তার মৃত্যু হয়েছে।

বাঁশেরবাদা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না। স্কুলের কোন পরীক্ষার ফলও প্রকাশ হয়নি। এমনকি স্কুলে ওই ছাত্রীদের নিয়ে কোন অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটেনি।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিম উদ্দীন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

Ads
Ads