প্রধানমন্ত্রী চাইলে আরও এক বছর দায়িত্ব পালনে রাজি মুহিত

  • ১-জানুয়ারী-২০১৯ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাইলে আরও এক বছর অর্থমন্ত্রীর দ্বায়িত্ব পালনে ইচ্ছুক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কোনো কথাই আমি ফেলতে পারি না। সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়, সেটা মানুষ বুঝে গেছে।

মঙ্গলবার (০১ জানুয়ারি) সচিবালয়ে তার নিজ দফতরে নতুন বছরের শুভেচ্ছা বিনিময়কালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

মুহিত বলেন, ‘আগামী পাঁচ বছরে বাংলাদেশ অর্থনীতিতে অসাধ্য সাধন করবে। সরকারের ধারাবাহিকতা থাকার কারণে আশা করছি, আগামী ৫ বছরেই বাংলাদেশ দারিদ্র্যমুক্ত দেশে পরিণত হবে। তবে কিছু সংখ্যক মানুষ সবসময় সরকারের ওপর নির্ভরশীল থাকে। দারিদ্র্য নিরসনে সব থেকে ভালো করেছে মালয়েশিয়া তারপরও সেখানে সাত শতাংশ দরিদ্র রয়েছে।’

তিনি বলেন, আগামী নতুন সরকারের প্রধান কাজ হবে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা এবং আর্থিকখাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ভোট ভালো হয়েছে। উন্নত দেশে ৪০ শতাংশ ভোট পড়লেই তারা খুশি হন। কিন্তু আমাদের দেশে সাধারণত ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ভোট হলে ভালো নির্বাচন ধরা হয়। তবে এবার ৭০ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছে। এর কারণ হলো- জনগণ জেনে গেছে শেখ হাসিনা ছাড়া উন্নয়ন হবে না। তাই এ নির্বাচনে জনগণ বেশি ভোট দিয়েছে।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে ছিলেন না আবুল মাল আবদুল মুহিত। তার বদলে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেয়া হয় তার ছোট ভাই এ. কে আবদুল মোমেনকে। নতুন সরকারের অর্থমন্ত্রী হতে চাইলে মুহিতকে টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী হতে হবে। গত সরকারের দুই মেয়াদে টানা দশটি বাজেট ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী মুহিত। বর্তমান সরকারে উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে মুহিতের অসামান্য অবদান রয়েছে।

/ই

Ads
Ads