শোক দিবসে বিকল্প ধারার এমপির পোশাক কারখানায় বন্দি রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগ!

  • ১৬-Aug-২০১৯ ১২:৪৭ অপরাহ্ন
Ads

উৎপল দাস
জাতির মহান নায়ক, স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ছিল বৃহস্পতিবার। দিবসটিতে জাতির পিতার পরিবারে সকল শহীদের স্মরণ করে দোয়া-মহফিল ও গভীর ভাব-গাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ করে। এরই ধারাবাহিকতায় লক্ষীপুরের কমল নগর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করলেও রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের ব্যানারে শোক দিবসের কোন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়নি। এ নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের ভেতরে বাইরে চলছে নানা সামালোচনা।  

অভিযোগ উঠেছে, রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর অঃ আবদুল মান্নান এমপির উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক দুরবস্থার সুযোগে এই অঞ্চলে বিকল্পধারার রাজনৈতিক শক্তি বৃদ্ধি করতে মেজর অঃ আবদুল মান্নান বেশ তৎপর। অনেকে মনে করছেন, রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার সংগঠনটিকে এখন বিকল্পধারার এমপির কাছে বন্ধক দিয়ে রাজনীতি করছেন। 

লক্ষ্মীপুর-৪, সংসদীয় আসনটি রামগতি ও কমল নগর নামে দুটি উপজেলায় বিভক্ত হওয়ার পর থেকেই স্থানীয় পর্যায়ে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের ২টি সাংগঠনিক ইউনিট হিসাবে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। বর্তমানে আওয়ামী লীগ জোটের সমর্থন নিয়ে আসনটিতে বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর অঃ আবদুল মান্নান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। এদিকে আওয়ামী লীগের নির্ধারিত কর্মসূচি বাস্তবায়নেও মেজর মান্নানের দ্বারস্থ হচ্ছে রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের একাধিক নেতা ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রতিবেদককে জানান, ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস। আমরা যারা মুজিব আদর্শের কর্মি এই দিবসটি আমাদের জন্য অনেক তাৎপর্যপূর্ণ। আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো সারাদেশে গভীর শোক গাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে থাকে। তবে, রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগ কোন ধরনের শোক র্যলী, মিলাদ, দোয়া বা আলোচনা সভার আয়োজন করেনি। বরং স্থানীয় সাংসদ বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর অঃ আবদুল মান্নানের সহযোগিতা নিয়ে তার সৌজন্যে মেজর মান্নানের নিজস্ব গার্মেন্টসের ভিতরে দায়সারাভাবে রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে কর্মসূচি নামমাত্র পালন করে।  বিষয়টা আমাদের জন্য চরম লজ্জার, হতাশার এবং বিব্রতকর।

স্থানীয় এলাকাবাসীর মতে, বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর অঃ আবদুল মান্নান সাহেব জাতীয় শোক দিবসে কর্মসূচী গ্রহণ করতেই পারেন, কারণ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কোন গোষ্ঠী বলা সংগঠনের নয়। কিন্তু সরকারি দল হিসাবে ক্ষমতার বারো-তেরো বছর অতিবাহিত করলেও রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগ মেজর অঃ আবদুল মান্নান এমপির উপর নির্ভরশীল হওয়াটা হতাশার এবং দুঃখজনক।

মেজর অঃ আবদুল মান্নান এমপির উদ্যোগে তার নিজস্ব পোশাক কারখানায় আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের শোক সভা ও দোয়া মাহফিলের সার্বিক তত্ত্বাবধানে উপস্থিত ছিলেন রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ওয়াহেদ মুরাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল ওয়াহেদ, রামগতি পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মেজবাহ উদ্দিন মেজু, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু নাছের, আফতাব আহমেদ, প্রচার সম্পাদক একরামুল কবির টিটুসহ ওয়ার্ড-ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Ads
Ads