কাঁচা চামড়া রফতানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি ট্যানারি মালিকদের

  • ১৪-Aug-২০১৯ ১২:১৬ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

দেশীয় শিল্প রক্ষায় কাঁচা চামড়া রফতানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন ট্যানারি মালিকরা।

বুধবার (১৪ আগস্ট) ধানমন্ডিতে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান ট্যানারি মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএ)।

সংবাদ সম্মেলনে বিটিএ’র চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ বলেন, কাঁচা চামড়া রফতানির সুযোগ দিলে শতভাগ দেশীয় এই শিল্প হুমকির মুখে পড়বে।

তিনি আরও বলেন, চামড়া শিল্প নগরীতে সাত হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ ঝুঁকির সম্মুখীন হবে। সাভারস্থ আধুনিক শিল্প নগরী প্রয়োজনীয় কাঁচা চামড়ার অভাবে সম্পূর্ণ অকেজো হয়ে পড়বে। এতে করে এই শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত বিস্তর জনগোষ্ঠী বেকার হয়ে পড়বে। ফলে শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টি হতে পারে। সার্বিক বিষয়ে বিবেচনা করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নেওয়া কাঁচা চাপড়া রফতানি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানানো জরুরি।

শাহীন আহমেদ বলেন, যেসব মৌসুমি ব্যবসাযী কাঁচা চামড়া সংগ্রহ করেছে তাদের আশ্বস্ত করছি, লবণযুক্ত কাঁচা চামড়া আমরা ন্যায্য মূল্যে তাদের কাছ থেকে নেবো। তাদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই। সরকার নির্ধারিত দামে আগামী ২০ আগস্ট থেকে চামড়া সংগ্রহ শুরু হবে।

চামড়ার দাম না পাওয়া ও বর্তমান পরিস্থিতির জন্য আড়তদারদের ওপর দায় চাপালেন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিটিএ’র সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত উল্লাহ, সিনিয়র সহ-সভাপতি ইলিয়াছুর রহমান বাবু, কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান ও ট্যানারি ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের সভাপতি আবুল কালাম প্রমুখ।

এর আগে মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ বকসী জানান, উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাঁচা চামড়া রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

মন্ত্রণালয় জানায়, বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যমতে লক্ষ্য করা যাচ্ছে, নির্ধারিত মূল্যে কোরবানির পশুর চামড়া কেনাবেচা হচ্ছে না। এ বিষয়ে চামড়াশিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যবসায়ীর দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে। একইসঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নির্ধারিত মূল্যে কাঁচা চামড়া বেচাকেনা নিশ্চিত করতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চাওয়া হয়।

Ads
Ads