আবারও বাড়ল স্বর্ণের দাম

  • ৫-Aug-২০১৯ ০৯:২৭ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ফের বাড়ল স্বর্ণের দর, এবার দুই সপ্তাহ না যেতেই সব ধরনের স্বর্ণের দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতি (বাজুস)।

আগামীকাল মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) থেকে নতুন দর কার্যকর হবে। সোমবার (০৫ আগস্ট) বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বর্ণের দাম বাড়ানোর খবর জানানো হয়েছে। 

এর ফলে সবচেয়ে ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেট সোনা এখন ৫৪ হাজার ৫২৯ টাকায় বিক্রি হবে। সর্বশেষ ২৪ অগাস্ট থেকে সোনার দাম ভরিতে একই পরিমাণ বাড়ানো হয়েছিল।

ঘটা করে স্বর্ণ করমেলা করার পর ৪ জুলাই সোনার দর বাড়িয়েছিল বাজুস। সেবার ভালো মানের সোনা ভরিতে ২ হাজার টাকার বেশি বাড়ানো হয়েছিল। তার আগে ১৩ জুন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার দিন প্রতি ভরি ভালো মানের সোনার দাম দেড় হাজার টাকা বাড়িয়েছিল বাজুস। কিন্তু তার চার দিন পরই দাম কমিয়ে আগের অবস্থায় ফেরত নেওয়া হয়। এরপর জুন মাসের শেষে প্রথমবারের মতো স্বর্ণ করমেলার আয়োজন করা হয়। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআর এবং বাজুস এ মেলার আয়োজন করে। মেলায় ব্যবসায়ীদের হাতে থাকা অপ্রদর্শিত প্রতি ভরি সোনা ১ হাজার টাকায় বৈধ করার সুযোগ ছিল। কিন্তু তাতে খুব একটা ভালো সারা পাওয়া যায়নি।

 

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়ার কারণে স্থানীয় বাজারে সোনার দর বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাজুস। সোমবার বাজাসের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে এক বছরের মধ্যে সোনার দর সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে।

এছাড়াও দেশী বুলিয়ন মার্কেটে স্বর্ণেল মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে বাজুসের কার্যনির্বাহী কমিটির সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত মোতাবেক ৬ অগাস্ট মঙ্গলবার থেকে বাংলাদেশের বাজারে সোনার ভরি ১ হাজার ১৬৬ টাকা বাড়ানো হয়েছে।

নতুন দর অনুযায়ী, মঙ্গলবার থেকে সারা দেশে প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) সবচেয়ে ভালো মানের (২২ ক্যারেট) সোনা ৫৪ হাজার ৫২৯ টাকায় বিক্রি হবে। ২১ ক্যারেট সোনা বিক্রি হবে ৫২ হাজার ১৯৬ টাকায়। ১৮ ক্যারেট সোনার দাম হবে ৪৭ হাজার ১৮১ টাকা।

আর সনাতন পদ্ধতির সোনা বিক্রি হবে ২৭ হাজার ৯৯৪ টাকায়। সোমবার পর্যন্ত প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা ৫৩ হাজার ৩৬৩ টাকায় বিক্রি হয়। ২১ ক্যারেট সোনা বিক্রি হয় ৫১ হাজার ৩০ টাকায়। ১৮ ক্যারেট সোনার দাম ছিল ৪৬ হাজার ১৪ টাকা। সোনাতন পদ্ধতির সোনা বিক্রি হয় ২৬ হাজার ৮২৭ টাকা।

ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতি ভরি ২২ ক্যারেটে ৯১ দশমিক ৬ শতাংশ, ২১ ক্যারেটে ৮৭ দশমিক ৫ শতাংশ, ১৮ ক্যারেটে ৭৫ শতাংশ বিশুদ্ধ সোনা থাকে।

সনাতন পদ্ধতির সোনা পুরনো অলঙ্কার গলিয়ে তৈরি করা হয়। এ ক্ষেত্রে কত শতাংশ বিশুদ্ধ সোনা মিলবে, তার কোনো মানদণ্ড নেই। অলংকার তৈরিতে সোনার দরের সঙ্গে মজুরি ও মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) যোগ করে দাম ঠিক করা হয়।

Ads
Ads