ডেঙ্গু প্রতিরোধে লম্বা প্যান্ট-পায়জামা-মোজা পরার পরামর্শ মেয়র খোকনের

  • ৪-Aug-২০১৯ ০৭:৪৪ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে সবাইকে লম্বা প্যান্ট, পায়জামা, মোজা পরে নিরাপদে থাকার চেষ্টা করতে হবে। ইমাম সাহেবেরা এমন পরেন। একটু সচেতন হলে আমরা এ থেকে মুক্তি পেতে পারি। মসজিদে নামাজের আগে অ্যারোসল স্প্রে করতে পারেন। তবে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ডেঙ্গুকে নিয়ন্ত্রণে আনার সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

রবিবার (৪ আগস্ট) নগর ভবনে ডিএসসিসি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ পরামর্শ দেন। কোরবানির বর্জ্য সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে মসজিদের খতিব ও ঈমামদের সঙ্গে মতবিনিময় এবং অ্যারোসেল স্প্রে বিতরণ সভার আয়োজন করে ডিএসসিসি।

সাঈদ খোকন বলেন, আল্লাহ তায়ালা মাফ করলে দ্রুত ডেঙ্গুমুক্ত শহর নিশ্চিত করতে পারবো। আগামী সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটিকে ডেঙ্গুমুক্ত করতে পারবো ইনশাল্লাহ। এ কাজে ইমামরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন। তারা নিজ এলাকায় প্রতিটি মসজিদে ডেঙ্গু থেকে মুক্তির লক্ষ্যে দোয়া পাঠ করবেন। যেন এ শহর দ্রুত ডেঙ্গুমুক্ত হয়। কারণ আল্লাহ ধৈর্যশীল ও নামাজিদের পছন্দ করেন।

ডেঙ্গু মোকাবিলায় সিটি করপোরেশন নানা উদ্যোগ নিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এডিস মশার লার্ভা নষ্ট করতে আগে প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০টি বাসায় আমাদের ইনসপেকশন টিম গেছে। আগামী দিন থেকে প্রতিদিন কমপক্ষে ৬০টি বাসায় আমাদের টিম যাবে। জনসচেতনতার মধ্য দিয়ে রাজধানীকে ডেঙ্গুমুক্ত করা সম্ভব। আমাদের নাগরিকরা এখন সবাই সচেতন।

মেয়র বলেন, ডেঙ্গু রোগে নগরের মানুষ আক্রান্ত ও আতঙ্কিত। এটা প্রতিরোধে প্রয়োজন জনগণের সতর্কতা। আমরা সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এগিয়ে যাচ্ছি। শিগগির আমরা দেখতে পারবো নতুন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা কমে আসছে।

কোরবানির ঈদে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের নির্দেশনা মানতে ইমামদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, পশু নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানি দিতে হবে। কোরবানির পর বর্জ্য যথাযথ স্থানে ফেলে ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে দিতে হবে। এরজন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে ব্লিচিং পাউডার যথাসময়ে পৌঁছে যাবে।

কোরবানির বর্জ্যে ডেঙ্গু যেন আবার জেঁকে বসতে না পারে সে বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওতাধীন মসজিদের ঈমাম-খতিব ছাড়াও অনুষ্ঠানে প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শরীফ আহমেদ, প্রধান বজ্য কর্মকর্তা এয়ার কমোডর জাহিদ হোসেনসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

Ads
Ads