রিফাত হত্যা মামলায় মিন্নির জামিন আবেদন না মঞ্জুর

  • ২১-Jul-২০১৯ ১২:২২ অপরাহ্ন
Ads

:: স্বপন দাস, বরগুনা প্রতিনিধি ::

বরগুনার আলোচিত রিফাত হত্যা মামলায় ১ নম্বর সাক্ষী থেকে আসামি হওয়া আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন আবেদন না মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

রোববার বরগুনা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে আসামী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির পক্ষে  জামিন আবেদন করেন মিন্নির নিয়েজিত আইনজীবীরা। 

মিনিরœ পক্ষে আদালতে আইন ও সালিশ কেন্দ্রের ৪ জন, ব্লাষ্ট’এর ৭ জন এবং বরগুনা আইনজীবী সমিতির দুইজন সদস্যসহ আরো ১০ জন স্থানীয় আইনজীবী মামলায় ১ নম্বর সাক্ষী থেকে আসামি হওয়া আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির পক্ষে আদালতে জামিন  শুনানিতে অংশ গ্রহন করেন। অপর দিকে রাষ্ট্রপক্ষে প্রায় ৪০ জন আইনজীবী জামিনের বিরোধীতা করে শুনানীতে অংশ নেয়। 

রোববার বেলা ১১ টায় বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সিরাজুল ইসলাম গাজী’এর আদালতে মামলার আসামী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির অনুপস্থিতিতে তার পক্ষে জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল বারী আসলাম ওকালাতনামা সহকারে বেলা ১১ টায় জামিন আবেদন করেন। এসময় আসামী পক্ষে আইনজীবীগণ শুনানিকালে আদালতকে বলেন, আসামী মিন্নি ঘটনায় সম্পূর্ন নির্দোষ। মামলার মূল এজাহারে আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি একজন গুরুত্বপূর্ন প্রতক্ষদর্শী স্বাক্ষী। মামলায় প্রকৃত আসামীদেরকে বাঁচানোর জন্য পরিকল্পিতভাবে  আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে এই মামলায় আসামী করা হয়েছে। মামলার গুরুত্বপূর্ন ভাইরাল হয়ে যাওয়া ভিডিও পর্যালোচনায় আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি নির্দোষ বলে প্রমানীত হয়। 

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সঞ্জীব দাস, এ্যাডভোকেট কামরুল আহসান মহারাজসহ প্রায় ৪০ জন আইনজীবী জামিনের বিরোধীতা করে আদালতে যুক্তি উপস্থাপন করে বলেন যে, আলোচিত এই হত্যাকান্ডে ইতোমধ্যে আসামী মিন্নিসহ ১৪ জন আসামী ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন। মামলাটি বর্তমানে তদন্তাধীন আছে। স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে আসামীরা কি বলেছে তা রাষ্ট্রপক্ষ জ্ঞাত নয়। তদন্তাধীন অবস্থায় আসামী জামিন পেলে মামলায় ব্যাপক প্রভাব সৃষ্টির আশংকা আছে এবং তদন্ত বিঘিœত হবে। তাই এপর্যায়ে  রাস্ট্রপক্ষ জামিন আবেদনের বিরোধীতা করেন। আদালত প্রায় পৌনে একঘন্টা শুনানী শেষে জামিন আবেদন না মঞ্জুর করেন। 

Ads
Ads