যানজটের অন্যতম একটি কারণ রিকশা: মেয়র খোকন

  • ৮-Jul-২০১৯ ০৭:০৮ অপরাহ্ন
Ads

ফাইল ছবি

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, যানজটের অন্যতম একটি কারণ রিকশা। পৃথিবীর কোনও শহরে আমাদের মতো এতো বেশি রিকশা নেই। আমরা আপাতত দু’টি সড়কে রিকশা বন্ধ করেছি। আপনাদের কাছে অনুরোধ, অন্তত শর্ট ডিসটেন্সগুলোতে (অল্প দূরত্ব) হেঁটে চলুন, স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

সোমবার (৮ জুলাই) কাকরাইলে উইলস্ লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজে ডিএসসিসি আয়োজিত এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগ প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে উদ্বুদ্ধকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র বলেন, ডেঙ্গু নিয়ে ভয় নেই, ডেঙ্গু কোনও বিষয় না। ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আমাদের একটু সচেতনতা আমাদের পরিবার ও শহরকে অনেক ভালো রাখতে পারে। আমরা ডিএসসিসির মেয়র, কাউন্সিলর সবাই পাশে আছি। ডেঙ্গু আক্রমণে প্রাণঘাতী হওয়ার কিছু নাই। আমি নিজে জেনে আপনাদের আশ্বস্ত করে বলছি, এটা নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নাই। এরপরও আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। আগামী ১৫ জুলাই থেকে আমাদের ডিএসসিসির ৫৭ ওয়ার্ডে মেডিক্যাল টিম থাকবে।

মেয়র বলেন, রিকশা সারা শহর থেকে উঠিয়ে দেওয়া হয়নি। মাত্র দু’টি রাস্তায় বন্ধ করা হয়েছে। এমআরটি’র নির্মাণ কাজের কারণে ভিআইপি রোডে ঢাকার নর্থ সাউথ কানেকশনটা স্লো হয়ে গেছে। জ্যাম লেগে যায়। আমরা এই যোগাযোগের গতিটা বাড়াতে মেইন সড়ক থেকে স্লো যানবাহনগুলো বন্ধ করে দিচ্ছি।

তিনি বলেন, রিকশা যেভাবে চালানো হয়, এটা অমানবিক। আমরা দু’জন-তিনজন রিকশায় উঠি আর সেটা চালিয়ে নিয়ে যান একজন চালক। এভাবে চলতে পারে না। রিকশা চালকরা অন্য কাজ করতে পারেন। আমাদের এক জায়গায় পড়ে থাকলে চলবে না। গ্রামে ধান কাটার মানুষ পাওয়া যায় না। পৃথিবীর কোনও দেশের রাজধানীতে রিকশা চলে না। আমাদের দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আমরা রিকশার একটা জায়গায় আটকে থাকতে পারবো না। আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।

মেয়র বলেন, আমরা রিকশায় অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি। মাত্র ৫০০ গজ দূরত্বের জন্য রিকশায় বসে পড়ি। রাইড শেয়ারিং পরিবহন চলছে। উবার চলছে, পাঠাও চলছে। ধীরে ধীরে রিকশাটাকে ছেড়ে দিতে পারি। এজন্য আমরা সার্কুলার বাস চালু করছি।

Ads
Ads