এরশাদ শঙ্কামুক্ত নন: জিএম কাদের

  • ১-Jul-২০১৯ ০৫:৩২ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত আছে। তবে তার অবস্থা শঙ্কামুক্ত নন।

সোমবার (০১ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে বনানীতে জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে একথা জানান দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

জিএম কাদের বলেন, আজ সকাল পর্যন্ত চিকিৎসকদের ভাষায়, এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত আছে। এর অর্থ, শুভ লক্ষণ। সুনির্দিষ্ট করে বলতে গেলে, ওনার ফুসফুসের যে ইনফেকশন আছে সেটা এখন ভালোর দিকে। দু ঘণ্টা পরপর তাকে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, এরশাদের কিডনিতে ইনফেকশন হয়েছে। সেটার ফাংশনে একটু সমস্যা হচ্ছে। ওনার যে বয়স এবং জটিলতা তাঁর শরীরে আছে। সব মিলিয়ে তিনি শঙ্কামুক্ত নন।

এরশাদের মৃত্যুর খবর দিয়ে দু’জন মন্ত্রীর দেওয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসের বিষয়ে সাংবাদিকেরা দৃষ্টি আকর্ষণ করলে জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, আজকাল অনেকের ভুয়া আইডি বের হয়েছে। আবার গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের অনেকের আইডি অন্যরা পরিচালনা করেন। সেটা যাই হোক, ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের কিছু না হয় সেটার অনুরোধ করব।

তিনি বলেন, সিএমএইচ কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা প্রয়োজনে আইএসপিআরের মাধ্যমে এরশাদের শারীরিক অবস্থা সংক্রান্ত সংবাদ পরিবেশন করবে। না জেনে কোনো ধরনের সংবাদ প্রচার করতে সাংবাদিকসহ সব সবার প্রতি অনুরোধ করেন জিএম কাদের।

উন্নত চিকিৎসার জন্য এরশাদকে বাইরে পাঠানোর বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, চিকিৎসকেরা এ বিষয় কোনও পরামর্শ এখনো দেননি। তার যে শারীরিক অবস্থা, সেই অবস্থায় এটা সঠিক হবে বলে মনে হয় না।

সম্মেলেন জাপা মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এরশাদকে দেখতে যাওয়ার কথা ছিল। চোখের সমস্যার কারণে তিনি আসতে পারেননি। তিনি বাসাতেও কাউকে আজ সাক্ষাৎ দিচ্ছেন না। প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে পাঠিয়েছিলেন সিএমএইচে।

উল্লেখ্য, এরশাদকে গত বুধবার সকালে হাসপাতালে ভর্তির পর গত তিন দিনে অবস্থার দৃশ্যমান কিছুটা উন্নতি মনে হলেও রবিবার ভোর থেকে তার অবস্থার মারাত্মক অবনতি ঘটে। তার ফুসফুসে ইনফেকশন ধরা পড়েছে। ফুসফুসে পানি জমেছে, ফলে প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট শুরু হয়েছে। চিকিৎসকরা কৃত্রিম উপায়ে তাকে অক্সিজেন দিয়ে রেখেছিলেন। মঙ্গলবার বিকাল থেকে এরশাদের প্রচণ্ড কাঁপুনি দিয়ে দফায়-দফায় জ্বর আসে। অবস্থা খারাপের দিকে গেলে বুধবার সকালে তাকে সিএমএইচের ক্রিটিক্যাল ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

Ads
Ads