বিতর্কিত যে ১৯ জনের পদ শূণ্য ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগ (তালিকাসহ)

  • ২৯-মে-২০১৯ ০৫:৪৭ অপরাহ্ন
Ads

উৎপল দাস
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ হাতে গড়া সংগঠন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন হিসাবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দেশের সকল আন্দোলন সংগ্রামে গৌরবময় ইতিহাসের উজ্জ্বলতম সাক্ষী। কিন্তু বরাবরই গণমাধ্যমে নেতিবাচক খবরের শিরোনাম হয় এই ছাত্রলীগ। এ ধারা থেকে বেরিয়ে আসতে ছাত্রলীগের সর্বোচ্চ অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে উদ্যোগী হয়েই সংগঠনটির শীর্ষ নেতা বাছাই করেছেন। কিন্তু কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার পরই আবারো খবরের শিরোনাম হয়েছে বিতর্কিতদের কারণে। সমসাময়িক ঘটনাপ্রবাহের পর গতরাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত এক বিশেষ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ১৯ জন বিতর্কিতদের পদ শূণ্য ঘোষণা করে। কিন্তু তারা সেখানে বিতর্কিতদের নাম প্রকাশ করেনি। 

এদিকে, ভোরের পাতার অনুসন্ধান এবং ছাত্রলীগের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র সেই ১৯ জনের একটি তালিকা পেয়েছে, যাদের পদ শূণ্য ঘোষণা করা হয়েছে। প্রথম ধাপে সংবাদ সম্মেলন করে যে ১৭ জনের নাম ঘোষণা করা হয়েছিল, সেখান থেকেও কয়েকজন নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন। তাই তারা নিজ নিজ পদে বহাল থাকবেন। বাকি পদগুলো শূণ্য ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি থেকে নেয়া হয়েছে, যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। পুরো ১৯ জনের বিষয়ে নেত্রীকে (শেখ হাসিনা) না  জানিয়ে তালিকা প্রকাশ করা হবে না বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা।  তাই চূড়ান্ত তালিকা পেতে প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। 
এদিকে, প্রাথমিকভাবে ভোরের পাতার অনুসন্ধানে ১৯ জন বিতর্কিতদের তালিকায় থাকা যাদের পদ শূণ্য ঘোষণা করা হয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে নিশ্চিত হয়েছে তারা হলেন:  সালাউদ্দিন জসিম, সৃজন ভূঁইয়া,  আবু সাঈদ, আরেফিন সিদ্দিকী সুজন, মাহমুদুল হাসান, বরকত হোসেন হাওলাদার, আমিনুল ইসলাম বুলবুল, আহসান হাবীব, সাদিক খান, ফুয়াদ  হাসান, জিয়ান আল রশিদ, তারিকুল ইসলাম মোমিন, আনজুমান  আরা আনু, সামিহা সরকার, সুশোভন অর্ক , নাজমুল হুদা সুমন, মোহাম্মদ হোসাইন। এই ১৭ জন ছাড়াও বিদ্রোহী হিসাবে আন্দোলনে বিতর্কিত ভূমিকা রাখার কারণে বি এম লিপি আক্তার এবং আল মামুন পদ দুটি শূণ্য করা হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। 
ছাত্রলীগের শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজ যারা করেছে তাদের পদই শূণ্য ঘোষণা করা হয়েছে। এরপরও যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আসবে সেগুলো তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগের সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী।  

Ads
Ads