জেনে নিন যেভাবে কমে যাবে বিদ্যুৎ বিল!

  • ২২-মে-২০১৯ ১০:৫১ অপরাহ্ন
Ads

:: লাইফস্টাইল ডেস্ক ::

গত কয়েক বছরের তুলনায় এ বছর গরম পড়েছে অনেক বেশি। গরমে শিশু-বৃদ্ধ সবারই হাঁসফাঁস অবস্থা। দিন-রাত এসি, ফ্যান চালিয়ে গরম থেকে কিছুটা নিস্তার পেলেও মাস শেষে চিন্তার কারণ হচ্ছে বিদ্যুৎ বিল। গরমের কারণে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ খরচ করার ফলে বেড়েই চলেছে বিদ্যুৎ বিল। তবে কিছু কৌশল জানা থাকলে এসি-ফ্যান ব্যবহার করেও বিদ্যুৎ বিল কমিয়ে ফেলা সম্ভব। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই টিপসগুলো।

অপচয় কমান :

অনেকেই আছেন প্রয়োজন ছাড়াও লাইট ফ্যান ছেড়ে রাখেন। এতে বিদ্যুৎ অপচয় হয়। এবং একই সাথে বাড়িয়ে দেয় বিদ্যুৎ খরচ। তাই অহেতুক বিদ্যুৎ খরচ করার মানসিকতা বাদ দিন। প্রয়োজন না থাকলে বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি বন্ধ রাখুন।

ঘর থেকে বের হলে :

ঘর থেকে বের হওয়ার সময় বাতি, ফ্যান বা অন্যান্য বৈদ্যুতিক যন্ত্রের সুইচ বন্ধ করে যান। এতে করে বাড়তি বিদ্যুৎ খরচ হবে না। আপনিও বেঁচে যাবেন বাড়তি বিল দেবার ঝামেলা থেকে।

মেইন সুইচ বন্ধ :

আপনি যদি সপরিবারে কোথাও বেড়াতে যান কিছুদিনের জন্য তবে বাড়ির বৈদ্যুতিক মেইন সুইচ বন্ধ করে দিয়ে যান। এতে বাড়টি খরচ থেকে বাঁচার পাশাপাশি বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে মুক্ত থাকবে ঘর।

প্রাকৃতিক আলো বাতাস :

বিদ্যুৎ বিল বাঁচানোর জন্য না শুধু স্বাস্থ্য ঠিক রাখতেও ভরসা রাখতে হবে প্রাকৃতিক আলো বাতাসে। বিশেষ করে ঘরের আসবাব এবং রঙের ক্ষেত্রে এমন রঙ ব্যবহার করতে হবে যা প্রাকৃতিক আলোকে বেশি প্রতিফলিত করে। এক্ষেত্রে সাদা রঙ বেশি উপযোগী। সাদা রঙের পর্দা এবং দেয়াল থাকলে সেই ঘর এমনিতেই অনেক ঠাণ্ডা থাকে।

এসি ব্যবহারে :

এসি ব্যবহারের ব্যাপারে সতর্ক হোন। এসি ব্যবহার করলে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেড়ে যায়। কিন্তু নিয়ম মেনে এসি চালালে সেই খরচ অনেক কমে আসে। যেমন টানা কয়েকঘণ্টা এসি চালানোর পর ফ্যান ব্যহার করুন এতে ঘর ঠাণ্ডা থাকবে এবং শরীরও থাকবে ভালো। এছাড়া স্লিপ মোড ব্যবহার, টাইমার দিয়ে রাখা এসব করেও এসিতে বিদ্যুৎ বিল অনেক কমিয়ে আনা যায়।

কাপড় ইস্ত্রি :

কাপড় ইস্ত্রি করার আয়রন ব্যবহার করলেও বিদ্যুৎ বিল অনেক বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে যখন কাপড় ইস্ত্রি করবেন চেষ্টা করুন অনেকগুলো কাপড় একবারে আয়রন করতে। এতে করে অনেক খরচই কমে আসবে বিদ্যুতের।

এছাড়াও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এলইডি বাতি ব্যবহার করলে বিদ্যুৎ বিল অনেক কমে যায়।

Ads
Ads