আদালতে মামলা, তবুও মুক্তিযাদ্ধার বাড়ির উপর দিয়ে চলছে সড়ক নির্মাণের চেস্টা

  • ২১-মে-২০১৯ ০৫:৪৮ অপরাহ্ন
Ads

:: শরীয়তপুর ব্যুরো ::

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার সেনেরচর ইউনিয়নের দক্ষিণ কান্দি গ্রামে অসহায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির ওপর আদালতের মামলা উপেক্ষা করে সড়ক নির্মাণের চেস্টা চলছে। এতে ক্ষোভ জানিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবার।  

মুক্তিযাদ্ধা জসিম উদ্দিন মাদবরের মেয়ে ডলি আক্তার বলেন, প্রতিবেশীদের হাঁটা-চলার জন্য বাড়ির উপর জায়গা দিয়েছি। এখন সেই জায়গা দিয়ে এলজিএসপি প্রকল্পের একটি টেন্ডারে ইট সোলিংয়ের সড়ক পাস করেন নারী ইউপি সদস্য। তিনি আমাদের বাড়ির গাছ কেটে জোর করে ইটের সড়ক নির্মাণ করার চেষ্টা করছেন। তাই কাজ বন্ধের দাবিতে ২০১৮ সালের ৪ জুলাই মামলা করি। ২০১৯ সালের ১৯ মে আদালত থেকে কাজ বন্ধের নির্দেশ আসে। তবে ২০ তারিখও তারা কাজ করেন।

তিনি আরো বলেন, এখানে সরকারি জায়গা নেই। আমার ভাই না থাকায় অসুস্থ মুক্তিযাদ্ধা বাবাকে নিয়ে দুই বোন প্রতিবাদ করতে পারি না। তাই এই সুযোগে প্রতিবেশীরা জোর করে বাড়ির ওপর সড়ক করে নেয়ার চেস্টা করছেন।

এলজিএসপি প্রকল্পের সভাপতি ও সেনেরচর ইউপির সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য লুৎফর নাহার বলেন, এই কাজের ব্যাপারে কিছুই জানতেন না। চেয়ারম্যান পাস করানোর পর প্রজেক্ট দিয়েছে। ঠিকাদারককে কাজ দেওয়া হয়েছে বলে আমাকে জানানো হয়েছে। সভাপতি হিসেবে কাজ দেখতে এসেছি। তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব হয়েছে ।তিনি এসে মীমাংসা করছেন। এখন মামলার ঝামেলা রয়েছে। তাই কাজ বন্ধ করতে বলে গেছি। তারপরও ঠিকাদার কাজ চলাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, এই ব্যাপারে চেয়ারম্যান সবকিছু জানেন। চেয়ারম্যান ঢাকা থেকে আসলে ঝামেলার মীমাংসা করে কাজ শুরু হবে।

জাজিরার ইএনও প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস বলেন, মঙ্গলবার ১০ টায় সড়ক পরিদর্শন করেছি । উভয়ের কথা শুনেছি। জদি কারো জমির উপর দিয়ে সড়ক নির্মান করতে না দেয় তাহলে কি করার আছে।

তিনি আরো বলেন, এই ব্যাপারে চেয়ারম্যান সবকিছু জানেন। চেয়ারম্যান ঢাকা থেকে আসলে ঝামেলার মীমাংসা করে কাজ শুরু হবে।

জাজিরার ইএনও প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস বলেন, মঙ্গলবার ১০ টায় সড়ক পরিদর্শন করেছি । উভয়ের কথা শুনেছি। জদি কারো জমির উপর দিয়ে সড়ক নির্মান করতে না দেয় তাহলে কি করার আছে।

Ads
Ads