মাদারীপুরে বিকাশ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য আটক

  • ১৫-মে-২০১৯ ০৭:৫১ অপরাহ্ন
Ads

:: মাদারীপুর প্রতিনিধি ::

র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩ মাদারীপুর ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল বুধবার ভোরে ফরিদপুরের ভাঙ্গা থানাধীন ঈশ্বরদী গ্রাম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে বিকাশ প্রতার চক্রের সক্রিয় তিন সদস্যকে আটক করেন। এসময় আটককৃতদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ১৯ টি, সীমকার্ড ৪৮ টি ও ১৭ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।  

মাদারীপুর র‌্যাব ক্যাম্প থেকে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয় যে, গোপণ সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩ মাদারীপুর ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল কোম্পানী অধিনায়ক ক্যাপ্টেন মোঃ খালেদ মাহমুদ এর নেতৃত্বে বুধবার ভোরে ফরিদপুরের ভাঙ্গা থানাধীন ঈশ্বরদী গ্রাম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে বিকাশ প্রতার চক্রের সক্রিয় তিন সদস্যকে আটক করেন। আটককৃতরা হলেন ভাঙ্গা উপজেলার ঈশ্বরদী গ্রামের লিয়াকত আলী কাজীর ছেলে মোঃ মিরাজুল কাজী(২৩),  সুরুজ শিকদারের ছেলে মোঃ এমদাদ শিকদার (২৪), সদরপুর উপজেলার আমিরাবাদ মৃধাডাঙ্গী গ্রামের মোঃ জালাল মৃধার ছেলে মোঃ শহিদ মৃধা । এসময় আটককৃত আসামীদের নিকট হতে ১৭ পিস নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ইয়াবা এবং বিকাশ প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন-১৯টি, এবং সীমকার্ড- ৪৮টি উদ্ধার করা হয়।

আটককৃত আসামীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে ও স্থানীয় লোকজনের নিকট হতে জানা যায় যে, ধৃত আসামীগণ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী ও বিকাশ প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য এবং তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান হতে বিকাশ প্রতারনার মাধ্যমে অসহায় লোকের নিকট থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিয়ে আসছে বলে স্বীকার করে।

এছাড়াও বিভিন্ন বিকাশ গ্রাহকদেরকে পুরষ্কার দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারনার মাধ্যমে নানা কৌশলে বিকাশ গ্রাহকদের একাউন্ট থেকে তাদের নিজেদের বিকাশ একাউন্টে টাকা স্থানান্তর করে নেয়। আটককৃতদের ইয়াবা ও অন্যান্য সরঞ্জামাদিসহ ভাঙ্গা থানায় হস্তান্তর করা হয়। এ সংক্রান্তে ভাঙ্গা থানায় একটি মাদক ও একটি প্রতারনা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Ads
Ads