মাদারীপুরের কালকিনিতে শিক্ষক পরিবারকে হয়রানীর অভিযোগ

  • ১১-মে-২০১৯ ০২:০৫ অপরাহ্ন
Ads

:: মেহেদী হাসান সোহাগ, মাদারীপুর প্রতিনিধি ::

মাদারীপুরের কালকিনিতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে আলাউদ্দিন খান নামের এক শিক্ষকসহ তার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার ছড়িয়ে হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষক পরিবার আজ রবিবার সকালে নিজ বাড়িতে এক প্রতিবাদ সভা করেন।

এলাকা ও ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার সাহেবরামপুর এলাকার আন্ডারচর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষক আলাউদ্দিন খানের সঙ্গে একই এলাকার জলিল খানের বাড়ির জমির সীমানা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে দ্বন্ধ চলে আসছে। কিন্তু কে বা কারা রাতের আধাঁরে গত শুক্রবার গভীর রাতে শিক্ষক আলাউদ্দিন খানের বাড়ির পাশের ইউনুস খানের একটি রান্নাঘরে অগ্নিসংযোগ করে পালিয়ে যায়। তবে ইউনুস খানের পরিবারে দাবি এ অগ্নিসংযোগ শিক্ষক আলাউদ্দিন করেনি এটা রাতের আধাঁরে কারা করেছে তাদের জানা নেই।

অপরদিকে এ অগ্নিসংযোগের ঘটনার সুযোগ ব্যবহার করে শিক্ষক আলাউদ্দিন খান ও তার পরিবারের সদস্যদের ফাঁসানোর জন্য প্রতিপক্ষ জলিল খান মিথ্যার আশ্রায় নিয়ে কালকিনি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর জলিল খান তার লোকজন দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে শিক্ষক আলাউদ্দিন খানসহ তার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে বিভিন্ন অপপ্রচার করেন বলে অভিযোগে জানাযায়। এতে করে চরম বিপাকে ও হয়রানীর শিকারে ভুগছেন শিক্ষক আলাউদ্দিন খান ও তার পরিবারের লোকজন।

শিক্ষক আলাউদ্দিন খান প্রতিবাদ সভায় অভিযোগ করে বলেন, জমিজমার বিরোধের জের ধরে আমাকে ও আমার পরিবারে সদস্যদের হয়রানী করার জন্য প্রতিপক্ষ জলিল খান, তাওহিদ, নুরুল ইসলাম, হাবিব, তরিকুল ও ইমরান খান মিলে এ অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে। আমি বিষয়টি থানা পুলিশকে জানিয়েছি।

ইউনুস খানের বোন মমতাজ বেগম বলেন, আমাগো রান্না ঘরে কারা অগ্নিসংযোগ করেছে তা সঠিকভাবে বলতে পারবনা। আমরা নিরীহ লোকজন ফাঁসাতে চাইনা। তবে যারা এই কাজ করছে তাদের বিচার দাবী করছি।

এ বিষয় অভিযুক্ত জলিল খান বলেন, আমি এবং আমার লোকজন এ অগ্নিসংযোগ করেনি। 

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার এসআই গোলাপ মিয়া বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। শিক্ষক আলাউদ্দিন খানকে হয়রানী করার জন্য এ রান্না ঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটানো হয়েছে। আলাউদ্দিন এর সাথে জরিত নয়। সে ষড়যন্ত্রের শিকার।

Ads
Ads