দুর্বল হয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’

  • ৪-মে-২০১৯ ১০:২৪ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ঘূর্ণিঝড় ফণী ভারতের ওড়িশা উপকূলে আঘাত হানার পর পশ্চিমবঙ্গ পেরিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল দিয়ে কিছুটা দুর্বল হয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে বলে জানিয়েছে আহাওয়া অধিদপ্তর।

শনিবার (০৪ মে) সকাল ৬টায় ঘূর্ণিঝড়টি সাতক্ষীরা, যশোর ও খুলনা অঞ্চলে অবস্থান করছিল বলে অধিদপ্তরের এক বিশেষ বুলেটিনে বলা হয়।

এখন ঘূর্ণিঝড়টির কেন্দ্রে বাতাসের একটানা গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটারের মতো, যা দমকা ও ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক শামসুদ্দিন আহমেদ জানান, ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হচ্ছে। অগ্রসর হয়ে এটি পাবনা, মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ি, ফরিদপুর, নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ ও ঢাকা অঞ্চলে অবস্থান করবে আরও পাঁচ থেকে ছয় ঘণ্টা। এসময় এই অঞ্চলে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া বিরাজ করবে।

শামসুদ্দিন আহমেদ আরও জানান, যতখানি ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হয়েছিল তার থেকে অনেকখানিই পরিত্রাণ মিলেছে। ঘূর্ণিঝড়টি স্থলভাগ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করায় ধীরে ধীরে কমে আসছে বাতাসের গতিবেগ এবং ঝড় মোকাবেলায় সরকারি উদ্যোগও যথাযথ রয়েছে, তাই অনেকটা এড়ানো গেছে বলে জানান তিনি।

মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে আজও ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত এবং কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

Ads
Ads