রাজশাহীতে মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা

  • ২১-Apr-২০১৯ ০১:৫১ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

সৎ মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে স্বামী মাহফুজ আলীকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে তার স্ত্রী। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পেশায় রিকশাচালক মাহফুজ নগরীর দরগাপাড়া এলাকার আবু বাক্কারের ছেলে এবং দ্বিতীয় স্ত্রী ও তার মেয়েকে নিয়ে মাহফুজ নগরীর লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া এলাকায় ভাড়া থাকেন।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুজ্জামান টুকু বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মাহফুজের স্ত্রীর আগের স্বামীর দুটি মেয়ে রয়েছে। এর মধ্যে ১৪ বছরের ছোট মেয়েটি তার মায়ের সাথে থাকে। আর ১৬ বছরের বড় মেয়েটি তার খালার বাড়িতে থাকে। মা-মেয়েকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মাহফুজ ছোট মেয়েটিকে প্রায়ই ধর্ষণ করেন বলে বেশ কিছু দিন ধরে শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে তারা বিষয়টি চেপে ছিলেন। তবে শুক্রবার সন্ধ্যায় মাহফুজ হাতেনাতে ধরা পড়েন।

কাউন্সিলর নুরুজ্জামান টুকু আরো বলেন, শুক্রবার বিকালে বড় মেয়েটি তার খালার বাড়ি থেকে মায়ের বাড়িতে যায়। সন্ধ্যায় মেয়েটিকে একা পেয়ে মাহফুজ ছুরি নিয়ে ভয় দেখিয়ে তাকেও ধর্ষণের চেষ্টা করেলে তার স্ত্রী বাড়ি গিয়ে বিষয়টি দেখে ফেলেন। এ সময় মাহফুজ পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয়দের সহায়তায় তার স্ত্রী তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এ সময় পুলিশ মাহফুজের ছুরি জব্দ করে নিয়ে গেছে।

রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় মাহফুজের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মাহফুজের সৎ মেয়েদের খালু মামলা করেছে। এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে মাহফুজকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

/কে 

Ads
Ads