সপ্তাহব্যাপী 'শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম-২০১৮' উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কে বি এম সাইফুল ইসলাম। কার্যক্রম সম্পর্কে অনুভূতি ব্যক্ত করে সাইফুল ইসলাম বলেন, এ ধরনের মহৎ কাজে আমাকে সুযোগ করে দেওয়ার জন্য ফানুসের উদ্ধোক্তা ও স্বেচ্ছাসেবীদের ধন্যবাদ জানাই। আমরা ব্যস্ততার মাঝে সময়  দিতে পারি না। কিন্তু স্বেচ্ছাসেবীরা এত পরিশ্রম করে ঈদের সময় ঈদ সামগ্রী, শীতের সময় শীতবস্ত্র দিয়ে ও বিভিন্নভাবে অসহায়দের সেবা করে যাচ্ছে। এদের কাজ নিসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। 

ফানুসের লিডার মো. খোকন মিয়া বলেন, অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে দাড়াতে কাজ করে যাচ্ছে ফানুস সংগঠন।  সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়াতে ফানুস স্কুল রয়েছে। আমরা চেষ্টা করেছি বস্ত্র দেওয়ার মাধ্যমে শীতার্থদের কষ্ট কমানোর জন্য। অসহায়দের পাশে দাড়াতে আমাদের সবার এগিয়ে আসা উচিত।

" /> ভোরের পাতা

ছয়শত শীতার্তের মাঝে উষ্ণতা ছড়াল ফানুস 

  • ২০-Dec-২০১৮

:: শেকৃবি প্রতিনিধি ::

শীতার্তদের উষ্ণতার পরশ দিতে  ৬০০ জন অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণদের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন "ফানুস "।

শুক্রবার (২১ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানী ঢাকার রাস্তায় ছিন্নমূলদের মাঝে কম্বল বিতরণের মধ্য দিয়ে সপ্তাহব্যাপী 'শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম-২০১৮' সমাপ্ত হয়।

জানা যায়, ফানুসের স্বেচ্ছাসেবীরা নভেম্বর মাসব্যাপী বিশ্ববিদ্যালয়ের  ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন হল, শিক্ষক, কর্মচারীদের কোয়ার্টার থেকে আট শতাধিক বস্ত্র সংগ্রহ করে। এরপর ব্যবহারযোগ্য কাপড়গুলো বাছাই করে আগারগাঁও বস্তি, আইডিবি ভবন সংলগ্ন বস্তি, ইসলামিক ফাউন্ডেশন সংলগ্ন বস্তি, বিএনপি বাজার সংলগ্ন বস্তিতে বিভিন্ন বয়সের মানুষের  হাতে তুলে দেয়। এছাড়া শুক্রবার নিজেদের জমানো টাকা দিয়ে কম্বল কিনে রাস্তায় ছিন্নমূলদের মাঝে বিতরণ করেছে স্বেচ্ছাসেবীরা। 

সপ্তাহব্যাপী 'শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম-২০১৮' উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কে বি এম সাইফুল ইসলাম। কার্যক্রম সম্পর্কে অনুভূতি ব্যক্ত করে সাইফুল ইসলাম বলেন, এ ধরনের মহৎ কাজে আমাকে সুযোগ করে দেওয়ার জন্য ফানুসের উদ্ধোক্তা ও স্বেচ্ছাসেবীদের ধন্যবাদ জানাই। আমরা ব্যস্ততার মাঝে সময়  দিতে পারি না। কিন্তু স্বেচ্ছাসেবীরা এত পরিশ্রম করে ঈদের সময় ঈদ সামগ্রী, শীতের সময় শীতবস্ত্র দিয়ে ও বিভিন্নভাবে অসহায়দের সেবা করে যাচ্ছে। এদের কাজ নিসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। 

ফানুসের লিডার মো. খোকন মিয়া বলেন, অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে দাড়াতে কাজ করে যাচ্ছে ফানুস সংগঠন।  সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়াতে ফানুস স্কুল রয়েছে। আমরা চেষ্টা করেছি বস্ত্র দেওয়ার মাধ্যমে শীতার্থদের কষ্ট কমানোর জন্য। অসহায়দের পাশে দাড়াতে আমাদের সবার এগিয়ে আসা উচিত।