সমকামী সম্পর্কের ভয়ঙ্কর পরিণতি

প্রতীকী ছবি

::সীমানা পেরিয়ে ডেস্ক::

ভারতের গুজরাটের আহমেদাবাদের সবরমতী নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সোমবার আত্মহত্যা করেন দুই মহিলা। জানা গিয়েছে, নদীতে ঝাঁপ দেওয়ার আগে দুই মহিলার মধ্যে একজন তিন বছরের কন্যা সন্তানকেও নদীতে ছুঁড়ে ফেলে দেন। তার পরে তারা দুজন মিলে নদীতে ঝাঁপ দেন।

মৃত দুই মহিলার নাম আশা ঠাকুর(৩০) এবং ভাবনা ঠাকুর(২৮)। বছর তিনের মেয়েটি আশারই সন্তান বলে খবর।

পুলিশ তদন্তে জানা গেছে, আশা ও ভাবনার মধ্যে সমকামী সম্পর্ক ছিল। কিন্তু কয়েকদিন আগে ওই সম্পর্ক জানাজানি হয়ে পড়ায় মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছিলেন তারা। জানা গেছে, দুই মহিলাই বিবাহিত। ভাবনারও দুটি ছেলে রয়েছে।

ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভাবনা ও আশা একই কারখানায় কাজ করতেন। সেখান থেকে তাদের আলাপ হয়। তার পরে শুরু হয় প্রেমের সম্পর্ক।

একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে পুলিশ। নোটে লেখা রয়েছে, পৃথিবী ছেড়ে তারা অনেক দূরে চলে যাচ্ছে, এই জগৎ তাদের একসঙ্গে থাকতে দেবে না।

সম্পর্কে জটিলতার জেরেই ওই দুই মহিলা আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন বলে অনুমান করা হচ্ছে। পাশাপাশি, দুই মহিলার পরিবারকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে গুজরাট পুলিশ।

সূত্র: এবেলা

/এনএস

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here