রমজানে পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সতর্ক সরকার

ব্যবসায়ীদের সহযোগিতার আশ্বাস, কাজ করবে টিসিবিও

:: কালাম আজাদ ::

পবিত্র রমজান শুরু হওয়ার কথা ১৭ মে। মুসলমানদের এ পবিত্র মাসকে ঘিরে ‘অতিউৎসাহী’ ব্যবসায়ীরা যাতে এবার পণ্যমূল্য বাড়াতে না পারেন, সেজন্য সতর্ক রয়েছে সরকার। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠকও করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বৈঠকে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে রমজানে পণ্যমূল্য বৃদ্ধি না করার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে সাধারণ মানুষের কাছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কম দামে পৌঁছে দিতে পরিসর বৃদ্ধি করে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সরকারি সংস্থা- টিসিবি (ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ)। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, আগামী ৬ মে থেকে সারাদেশে স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রি শুরু করবে টিসিবি। এই কর্মসূচির আওতায় রাজধানীসহ সারাদেশে ভোজ্যতেল, চিনি, ডাল, ছোলা এবং খেজুর বিক্রি করা হবে।

এ ব্যাপারে টিসিবির পরিচালক রুহুল আমিন খান ভোরের পাতাকে জানান, এই কর্মসূচি ৬ মে থেকে শুরু হবে এবং এটি ঈদুল ফিতর পর্যন্ত চলবে। সারাদেশে ২ হাজার ৭৮৪ জন ডিলার এবং ১৮৭টি ট্রাকের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করা হবে। প্রতিটি ডিলার তিন কিস্তিতে সব পণ্য পাবেন এবং মানুষ তাদের কাছ থেকে নির্দিষ্ট এই পণ্যগুলো কিনবেন। এছাড়া সারাদেশে ১০টি খুচরা বিক্রয় কেন্দ্র থেকে কার্যক্রম চালানো হবে। এর মধ্যে ঢাকা শহরে তিনটি এবং বাকি সাতটি বিভাগীয় শহরগুলোয়।

তিনি আরও জানান, ঢাকায় ৩৫টি, চট্টগ্রামে ১০টি, প্রতিটি বিভাগীয় শহরে পাঁচটি এবং প্রত্যেকটি জেলা শহরে দুটি স্থানে ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি করা হবে।

ব্যবসায়ীদের আশ্বাস : পবিত্র রমজানে যাতে পণ্যমূল্য বৃদ্ধি না হয়, সেজন্য ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ইতোমধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে ব্যবসায়ীরা বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদকে বলেছেন, আসন্ন পবিত্র রমজানে ভোক্তাদের আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না। সম্প্রতি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে রমজান উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকে নিত্যপণ্যের আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীরা রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না বলে মন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন।

এ ব্যাপারে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ভোরের পাতাকে বলেন, রমজান মাসকে সামনে রেখে দেশে উৎপাদনের পাশাপাশি চাল, ভোজ্যতেল, ডাল, চিনি, পেঁয়াজ, রসুন, আদাসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য আমদানি করা হয়েছে। রমজানে এসব পণ্যের দাম বৃদ্ধির কোনো আশঙ্কা নেই।

তিনি জানান, সরকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ‘বন্ধুসুলভ’ সম্পর্ক রেখে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে চায়। ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারাও রোজাদার ভাইদের প্রতি সহানুভূতিশীল হোন, আমাদের ধর্মেও এ ধরনের নির্দেশনা রয়েছে।’

 

ভোরের পাতা/ই

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here