যে কারণে সংসার ভাঙছে পূর্ণিমার!

:: বিনোদন ডেস্ক ::

দীর্ঘদিন ধরেই বড় পর্দার আড়ালে থাকলেও টিভি পর্দায় তিনি নিয়মিতই আছেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। সেই ধারাবাহিকতায় অনেক চিত্র্যনাট্য থেকে বেছে ঈদে ‘পোট্রেট’ নামের বিশেষ একটি টেলিফিল্ম কাজ করলেন তিনি। সহশিল্পী হিসেবে তার সঙ্গে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক ইমন ও নিরব। রুম্মান রশীদ খানের গল্পে টেলিফিল্মটি তৈরি করছেন মাকসুদুর রহমান বিশাল। নাম ‘পোট্রেট’।

যেখানে স্বামী-স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যাবে নিরব ও পূর্ণিমাকে। আর তাঁদের বন্ধুর চরিত্রে ইমনকে। ঈদের পঞ্চম দিন বেলা আড়াইটায় এনটিভিতে প্রচারিত হবে এস এস মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত টেলিফিল্মটি।

কাহিনি অনুযায়ী, সুখের সংসার নিরব-পূর্ণিমার। একে-অপরকে যেন চোখে হারায়। সব কিছুই চলছিল সুন্দর ভাবে। হঠাৎ ছন্দপতন হয় ইমনের আসায়। ইমন নিরবের স্কুলের ঘনিষ্ঠ বন্ধবী। তাঁকে নিয়ে একটু বেশি রকমই বাড়াবাড়ি শুরু করে নিবর। যা সহজে মেনে নিতে পারে না পূর্ণিমা। সহজ জীবন হতে শুরু করে জটিল।

কিন্তু তাঁদের জীবনে যে এমন দিন আসবে ভাবেনি কেউ। বন্ধুর জন্য চিড় ধরেছে দাম্পত্যে। সম্পর্কের গোলক ধাঁধায় নিরব ও পূর্ণিমা ও ইমন। যদিও রিয়েল দুনিয়ায়।

‘পোট্রেট’ প্রসঙ্গে পূর্ণিমা বলেন, “বিশেষ দিনে ভাল পাণ্ডুলিপি পেলে কাজ করি। নাট্যকার রুম্মান রশীদ খানের বেশ কয়েকটি গল্পের মধ্য থেকে আমি নিজেই ‘পোট্রেট’-এর গল্প পছন্দ করি। কারণ এ ধরনের গল্পে এর আগে আমার কাজ করা হয়ে ওঠেনি। ভীষণ ভাল লেগেছে কাজটি করে। বিশেষ করে ইমন-নিরবের সঙ্গে বেশ আনন্দ নিয়ে অভিনয় করেছি।”

এদিকে পূর্ণিমা সঙ্গে কাজ করে খুব খুশি ইমন। তিনি বলেন, “পূর্ণিমার সঙ্গে কাজ করাটা বরাবরই আশীর্বাদ। তার মত সহশিল্পী পাওয়াটা ভাগ্যের ব্যাপার। তবে এই টেলিফিল্মটি বরাবরই আমার কাছে বিশেষ হয়ে থাকবে- কারণ টেলিফিল্মে আমার এবং নিরবের চরিত্রের নামকরণ করা হয়েছে ব্যক্তিজীবনে আমার ছেলেদের নামানুসারে (শায়ান ও সামিন)।”

তবে একটু বেসুরে কথা বললেন নিরব। তাঁর কথায় “আমি সাধারণত ছোট পর্দায় অভিনয় করতে চাই না। বিশেষ করে বন্ধু ইমনের সঙ্গে কাজ করতে গেলে দু’জনই আমাদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করি। সমান্তরাল চরিত্র খুঁজি, যা সচরাচর পাই না। তবে ‘পোট্রেট’ টেলিফিল্মে আমাদের দুজনেরই বেশ শক্তিশালী দুটি সমান্তরাল চরিত্র রয়েছে। যা দর্শকরা উপভোগ করবেন।”

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here