মুসলিমরা ধৈর্য ধরে লেখাটি পড়ুন ও সতর্ক হউন!

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

যারা মুসলিম- আবেগী মুসলিম হয়ো না, চেতনায় মুসলিম হও। সবাই দয়া করে শেষ পর্যন্ত পড়বেন। পোষ্টটি লাইক পাওয়ার জন্য না।কিন্ত অনুরোধ একটু সময় নিয়ে পড়বেন।

আমীন না লিখে যাবেন না

ছবিটিতে Like দিয়ে সবাই আমীন লিখুন

কাবা ঘরের ছবি দিয়ে কে কে এখানে যেতে চান?

হাজরে আসওয়াদ এর ছবি দিয়ে) কে কে এই পাথরে চুমু দিতে চান?

পাগড়ির ছবি দিয়ে এটা নবীজির পাগড়ি! সবাই আমীন বলুন ও শেয়ার করুন।

পুরনো জুতার ছবি দিয়ে এটা নবীজির জুতা! কেউ আমীন না লিখে যাবেন না! এগুলোকে ইসলাম প্রচার বলে না।

এক শ্রেণির Like, Comment ও Follower লোভীরা এগুলো পোষ্ট করে থাকে বেশি বেশি Like Comment ও Follower বাড়ানোর জন্য। আর আবেগী মুসলিম ভাই-বোনেরা তাদের ফাঁদে পা দিয়ে ঐসব পোষ্ট এ Like দেয়! কমেন্ট করে! শেয়ার করে! আফসোস! এতে তাদের প্রচার আরো বেশি হয়।।।

ওহে মুসলিম আবেগী হয়ো না। চেতনায় মুসলিম হও। আমীন লিখলেই জান্নাতে যাওয়া যায় না। যদি দেখো কেউ এরকম পোষ্ট করছে, কমেন্ট করে এর প্রতিবাদ করো যে, এগুলোকে ইসলাম প্রচার বলে না। ঐসব পোষ্ট ভুলেও Share করবে না।

আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য মানুষকে দ্বীন সম্পর্কে জানানোর উদ্দেশ্যে কুর’আন-সুন্নাহ প্রচার করা হল ইসলাম প্রচার। হালাল-হারাম সম্পর্কে মানুষকে সতর্ক করা হল ইসলাম প্রচার। আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের বাণী প্রচার করা হল ইসলাম প্রচার।

কুর’আন-সুন্নাহর আলোকে পোষ্ট করা হল ইসলাম প্রচার। অবশ্যই নিয়ত হতে হবে একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টি। নাহলে কুর’আন-সুন্নাহ প্রচার করলেও সেটা ইসলাম প্রচার হবে না।

অতএব, আসুন নিয়ত বিশুদ্ধ করি।

আল্লাহ আমাদের সবাইকে (দুনিয়াবী স্বার্থ ছাড়া) সহিহ দ্বীন প্রচার করার তাওফিক দিন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here