বোনাসের টাকায় এতিমদের মুখে ঈদের হাসি ফুটালেন পুলিশ কর্মকর্তা নাজমুল

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলায় বাছট গ্রাম। এই গ্রামে রয়েছে ‘বাছট বৈলতলা মুকদমপাড়া হাফিকজিয়া’ নামে একটি মাদরাসা ও এতিমখানা। সেখানকার দরিদ্র শিক্ষার্থী ও এতিমদের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা শেখ নাজমুল আলম।

ঢাকা মহানগর পুলিশের এই জয়েন্ট কমিশনার (ক্রাইম) তার নিজের ঈদ বোনাসের টাকায় তাদের দিয়েছেন ঈদের নতুন পোশাক। সেইসঙ্গে ওই মাদরাসার শিক্ষকদেরও নতুন পোশাক দিয়েছেন তিনি।

তার (জয়েন্ট কমিশনার) পক্ষে সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রহমান ওই মাদরাসায় শনিবার এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে ঈদ উপহারগুলো বিতরণ করেন।

এ প্রসঙ্গে আমিনুর রহমান বলেন, সমাজের অনগ্রসর মাদরাসার দুস্থ শিশু ও এতিমদের মাঝে ঈদের আনন্দ বিলিয়ে দিতে স্যারের এই মহান প্রয়াস আমার মতো শতশত পুলিশ সদস্যকে নিঃসন্দেহে অনুপ্রাণিত করবে।

আবেগাপ্লুত মাদরাসার মুহতামিম হাফেজ মাওলানা জয়নাল আবেদীন। তিনি বলেন, এই মাদরাসার এতিম শিশুদের বেশির ভাগ অভিভাবকেরই আর্থিক সামর্থ্য নেই যে ঈদে তাদের শিশু সন্তানদের নতুন পোশাক কিনে দেবে। কিন্তু নাজমুল স্যারের দেয়া উপহারগুলো এতিম ও দরিদ্র শিশু শিক্ষার্থীদের ঈদ আনন্দের পরিপূর্ণতা এনে দেবে বলে আমার বিশ্বাস।

মাদরাসা ও এতিমখানার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুল্লাহ মিজান বলেন, উপহার দাতা শেখ নাজমুল আলম সাদামনের পুলিশ কর্মকর্তা। তার প্রতি অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। সমাজের সব বিত্তবানই এতিম ও দরিদ্র শিশুদের মাঝে ঈদ আনন্দ বিলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা উচিত।

উপহার বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ জেলা কমিউনিটি পুলিশের সিনিয়র সহ-সভাপতি খন্দকার আশরাফ উন নবী, সাটুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন পিন্টু,মাদরাসার কোষাধ্যক্ষ নুরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি শামসুর রহমান পিন্টু, বাছট বৈলতলা পল্লী মঙ্গল সমিতির সভাপতি আব্দুর রহমার বিশ্বাস, বাছট শাহী জামে মসজিদের কোষাধ্যক্ষ তোফাজ্জল হোসেন মেম্বার, মাদরাসার উপদেষ্টা মজিবুর রহমার, যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, মাদরাসার উপদেষ্টা হাসিবুল হাসান সোহেল এবং অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here