বনানীতে সিদ্দিক মুন্সি হত্যা: কিলিং মিশনের দায়িত্বে থাকা নূরা গ্রেপ্তার

::ভোরের পাতা অনলাইন::

বনানীর আলোচিত সিদ্দিক মুন্সি হত্যায় জড়িত নূর আমিন ওরফে নূরা (২৭) নামে আরেক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

রাজধানীর বাড্ডা এলাকা থেকে বুধবার রাতে তাকে গ্রেফতার করে ডিবি উত্তরের গুলশান জোনাল টিম। ডিবি উত্তরের অতিরিক্ত উপ কমিশনার- এডিসি গোলাম সাকলায়েন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তারকৃত নূর আমিন ওরফে নূরা দীর্ঘদিন যাবত বাড্ডা, গুলশান, রামপুরা, এলাকায় শীর্ষ সন্ত্রাসী আরিফ, নূরী, শরীফ, পিচ্চি আলামিনের সহযোগী হিসেবে অস্ত্রবাজি, চাঁদাবাজি এবং গুলি করে ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিল। হত্যাকারীদের চারজনের ভিডিও ফুটেজ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। পরে জানা যায় এ ঘটনায় অংশগ্রহণকারী মোট সাতজন। এদের মধ্যে নূরী, শরীফ, সাদ্দাম ও আরিফ রুমের ভেতরে ঢুকে গুলি করে এবং রুমের গেটে পিচ্চি আলামিন এবং নূরা অবস্থান করে।

কিলিং মিশনে নূরার দায়িত্ব ছিল ভেতর থেকে সবাই বেরিয়ে যাওয়ার পর বিল্ডিংয়ের গেটে তালা লাগিয়ে দেয়া। বৃহস্পতিবার সকালে নূরাকে আদালতে হাজির করা হবে। বনানীর সিদ্দিক মুন্সি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত চারজন আসামি বিভিন্ন সময় কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। বাকি দুইজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে।

২০১৭ সালের ১৪ নভেম্বর রাতে বনানীর ৪ নম্বর রোডের বি-ব্লকের ১১৩ নম্বর বাড়ির এমএস মুন্সি ওভারসিজ (রিক্রুটিং এজেন্সি) প্রতিষ্ঠানের মালিক সিদ্দিক হোসেন মুন্সিকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। পরদিন (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বানানী থানায় নিহতের স্ত্রী জোৎস্না বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা চারজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন।

/এনএস

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here