নির্যাতনের শিকার শিশুকে বাঁচালো ৯৯৯

:: ভোরের পাতা অনলাইন ::

১২ বছরের এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেন এলাকার একটি বাসা থেকে তিনজনকে আটক করে নিয়ে গেছে পুলিশ। জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এর মাধ্যমে নির্যাতনের বিষয়ে জানতে পেরে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়।

বুধবার রাতে ইস্কাটনের ১২/এ বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়। তবে বাড়ির গৃহকর্তা এখনো পলাতক রয়েছেন।

রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাইনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, উদ্ধারের পর দেখা যায়, শাওনের হাত-পাসহ সারা শরীরে আঘাতের চিহ্ন। তার শারীরিক অবস্থাও ভালো নয়। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হচ্ছে চিকিৎসার জন্য। পুলিশ গৃহকর্তা এবং তার স্ত্রী তাহমিনা খানকে না পেয়ে তার ছেলে তানজিলুর ইসলাম (৩০), তাদের আত্মীয় ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন (৪৪) এবং তার স্ত্রী তামান্না খানকে (৪০) গ্রেপ্তার করে। নির্যাতিত কিশোর ইস্কাটন গার্ডেনের এ বাসায় দুই বছর ধরে কাজ করে আসছিল। এর আগেও তাকে বেশ কয়েকবার নির্যাতন করা হয়।

২০১৬ সালের ১২ ডিসেম্বর চালু হয় জাতীয় জরুরি সেবা ‘৯৯৯’। এ সেবা চালু হওয়ার পর থেকে বিভিন্ন সময়ে সেবা নিয়ে আসছেন সাধারণ মানুষ। ‘৯৯৯’ নম্বরে ডায়াল করলেই মিলছে জরুরি অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশি সেবা। ৯৯৯ এ কল করতে কোনও টাকা খরচ হবে না। মোবাইল ফোনে টাকা না থাকলেও বিপদগ্রস্ত যেকোনও নাগরিক দেশের যেকোনও প্রান্ত থেকে ৯৯৯ এর মাধ্যমে পুলিশসহ অন্যান্য জরুরি সেবা সংস্থাগুলোর সাহায্য নিতে পারবেন।

 

অনলাইন/কে 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here