“ধন্য পিতার, ধন্যি মেয়ে”

::মহিদুর রহমান হিরা::

জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল
গড়বে সোনার দেশ,
হটাৎ পশুর নির্মমতায়
স্বপ্ন হল শেষ!!

সে কি সেদিন ভেবেছিল–
বাঁচবে কেহ তাঁর?
নিজের কাঁধে চাপিয়ে নেবে
দেশ-জনতার ভার!

তাঁর-ই ‘হাসু’ শেখ হাসিনা,
বিস্তৃত এক নাম!
যে কন্যা তাঁর বাড়িয়েছে
দেশ ও জাতির দাম!!

ধন্য পিতার ধন্যি মেয়ে
দেখায় তেলেসমাতি!
তলাবিহীন বাঙালী আজ
উন্নত এক জাতি!!

পিতার মনের স্বপ্ন থেকেও
পূরণ অনেক বেশি,
উন্নয়নের জোয়ারে আজ
ভাসছে পুরো দেশ-ই।

উপর থেকে খুশিতে বাপ
চোখের জলে ভাসে,
দেখেন, তাঁর ও–ই ‘হাসু’
কত দেশকে ভালোবাসে!

‘জাতির জনক’ হব,
পিতা ভেবেছিল কবে?
তাঁর ভাবনায় ছিল এদেশ
‘সোনার বাংলা’ হবে!!

বিস্মিত হয় বিশ্ববাসী,
বিস্মিত সব দেশ,
কার চালনায় বাংলা হল
‘সোনার বাংলাদেশ’!!

মুগ্ধ পিতাও বিস্মিত হন,
হয়তো ভাবেন শুধু,
“এই ‘হাসু’ কি সেই ‘হাসু’ তাঁর
বৈজ্ঞানিকের বধুঁ”!!

নানা রকম কুচক্রী আর
খাদক চারিপাশে,
তবু হাসু চালাচ্ছে দেশ
সুষ্ঠু পরিবেশে!!

তাঁর ‘হাসু’ আজ বিশ্বখ্যাত
যায় কি কভু ভাবা!
হাসুর জ্ঞানের গভীরতায়
স্নিগ্ধ হাসেন বাবা!!

দোয়া, ‘হাসু’, দেশকে আরো
অনেক কিছু দেবে,
বুক ফোলে তাঁর গর্বে—
“আমি ‘হাসু’র পিতা” ভেবে!!

ধন্য কন্যা শেখ হাসিনা
গাই জয়গান তাঁর!
আবার চাপাক নিজের কাঁধেই
দেশ-জনতার ভার!!

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here