তীব্র গরমে গাড়ির উপরেই মচমচে মাছ ভাঁজলেন এই নারী!

:: সীমানা পেরিয়ে ডেস্ক ::

গরম ও রোদের হাত থেকে বাঁচতে নিজে একটি ছাতা ধরে রেখেছিলেন ওই মহিলা। ৪০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় মাছ যে বেশ মুচমুচে ভাজা হয়েছিল, সে ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই।

মাছের তেলে মাছ ভাজা ব্যাপারটার সঙ্গে প্রায় সকলেই পরিচিত। কিন্তু, গাড়ির বনেটে মাছ ভাজা! তাজ্জব করে দেওয়ার মতোই ব্যাপার বটে।

এমনই এক ঘটনার কথা টুইট করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘পিপলস ডেইলি, চায়না’। তাদের টুইটার পেজে, মাছ ভাজার তিনটি ছবি এখন স্বাভাবিকভাবেই ভাইরাল নেট দুনিয়ায়।

চিনের শানডং রাজ্যের একটি শহর বিনঝৌ। ইওলো নদীর মোহনার বেশ কাছেই এই শহরের অবস্থান, কতকটা কলকাতার মতোই। আরও ভাল করে তুলনা করলে দেখা যাচ্ছে যে বিনঝৌয়ের আবহাওয়ার সঙ্গেও বেশ মিল রয়েছে তিলোত্তমার। মূলত চারটি ঋতু— শীত, বসন্ত, গ্রীষ্ম ও হেমন্ত। তবে, শীতের সময়ে মাঝেসাঝে তুষারপাত হয়।

স্বাভাবিকভাবেই, সেখানের গরমকালে তাপমাত্রা বেড়ে যায় মাত্রাতিরিক্ত। এবং চলতি বছরে তা ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে ৪০-এর ঘরে।

এমনই এক দিনে, শহরের পথে দেখা যায় এক মহিলাকে মাছ ভাজতে। কিন্তু, কোনও কড়াই বা ফ্রাইংপ্যানে নয়, তিনি মাছ ভাজছিলেন একটি গাড়ির বনেটের উপরে। পাঁচটি ছোট আকারের মাছ পর পর রেখে বেশ মনযোগ দিয়েই তা ফ্রাই করছিলেন তিনি। ঝকঝকে কালো গাড়িটির বনেটে আশেপাশের বহুতলের প্রতিফলনও দেখা যাচ্ছিল স্পষ্ট। এক পিঠ ভাজা হয়ে গেলে, দু’টি চপস্টিকের সাহায্যে মাছগুলি উলটে দেন মহিলা।

গরম ও রোদের হাত থেকে বাঁচতে নিজে একটি ছাতা ধরে রেখেছিলেন ওই মহিলা। ৪০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় মাছ যে বেশ মুচমুচে ভাজা হয়েছিল, সে ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু গাড়িটির কী অবস্থা হয়, তা জানা যায়নি এখনও।

প্রসঙ্গত, গরমের এমন অসহনীয় তাপমাত্রায় ভারতেও এমন অদ্ভুত রান্নার ঘটনার কথা জানা যায়। যেমন, গত বছর ওড়িশার তিতলাগড়ে, এক ব্যক্তি রাস্তাতেই একটি ফ্রাইং প্যান রেখে তাতে ডিমের পোচ তৈরি করেছিলেন। মাত্র এক মিনিটে।

সর্বভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৬ সালে এমনই ডিম রাঁধার এক ভিডিও ভাইরাল হয়। ঘটনা ছিল তেলেঙ্গনার করিমনগরের। সূত্র: এবেলা

ভোরের পাতা/ই

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here