গোপনে জায়ামাতকে অর্থায়ন করছে ব্যবসায়ী মোশাররফ পুষ্টি

::উৎপল দাস::
দেশ বিরোধী সব ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে কাজ করছে দু’টি রাজনৈতিক দল। লণ্ডন থেকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, দণ্ডিত আসামি তারেক রহমানের সঙ্গে যোগসাজস করে জামায়াতের কয়েকজন নেতা সেই ষড়যন্ত্রের বীজ বুনন করেন। আর এই দেশ থেকে তাদের কয়েকজন দাতা বা দোসর আর্থিকভাবে পৃষ্ঠপোষকতা চালিয়ে যাচ্ছেন গোপনে। বিএনপির ৮ জন নেতার পাশাপাশি আরো কয়েকজন ব্যবসায়ী গোপনে তারেক রহমান এবং জামায়াতকে টাকা দিয়ে পৃষ্ঠপোষকতা করছে তাদের তালিকা সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোর হাতে রয়েছে। জামায়াতকে গোপনে আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগ রয়েছে এমন একজন ব্যবসায়ীর নাম মোশরারফ কম্পোজিট টেক্সটাইল মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মোশাররফ হোসেনের নানা অপকর্ম, দুর্নীতি, নারী কেলেংকারি থেকে শরু করে গোপন ষড়যন্ত্র নিয়ে ভোরের পাতার ধারাবাহিক প্রতিবেদনের আজকে থাকছে প্রথম পর্ব।

মোশরারফ হোসেন পুষ্টির বাড়ি গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জের হাতিমারা। তার পরিবারের অধিকাংশ লোকজনই জায়ামাতের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তারা ওপরে ওপরে বিএনপি করলেও জামায়াতের সঙ্গে আঁতাত করে পৃষ্ঠপোষকতা করে। মোশাররফ হোসেনের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান কম্পোজিট মিলে চাকরি পেতে হলে অবশ্যই জামায়াতের বড় কোনো নেতার সুপারিশ প্রয়োজন বলে জানা গেছে। তিনি বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস এসোসিয়েশনের পরিচালকও বটে। কিন্তু  মোশাররফ হোসেনের এক ভাই নজরুল হোসেনের মাধ্যমে তিনি বিদেশে টাকা পাচার করে থাকেন। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সম্প্রতি নজরুল ইসলামের পাসপোর্ট জব্দ করে বিদেশে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

সর্বশেষ উপজেলা নির্বাচনে ‍মুন্সিগঞ্জ সদরে চেয়ারম্যান পদে তারেক রহমানকে টাকা দিয়ে জামায়াতের লবিংয়ে মনোনয়ন পেয়েছিলেন। যদিও নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কাছে বিশাল ভোটে পরাজিত হয়েছেন। মুন্সিগঞ্জের স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, মোশরারফ হোসেন সাবেক তথ্য মন্ত্রী শামসুল ইসলামের আস্থাভজন ছিলেন, কিন্তু তার সঙ্গে প্রতারণাও করেছেন। এরপর থেকেই তিনি জামায়াতের সঙ্গে গোপনে আঁতাত করে রাজনীতি করছেন। যদিও তিনি কখনোই তেমনভাবে এলাকাতে যান না।

জায়ামাতের আর্দশের দু’টি গণমাধ্যম নয়াদিগন্ত ও বন্ধ হয়ে যাওয়া টেলিভিশন দিগন্ত টিভির পরিচালক ছিলেন এই মোশররফ হোসেন। এছাড়া জামায়াত সংশ্লিষ্ট অনেকগুলো প্রতিষ্ঠানে গোপনে নামে বেনামে বিনিয়োগ করে রেখেছেন এই মোশাররফ হোসেন।

এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে টেলিফোনে মোশাররফ হোসেন আমতা আমতা করে বলেন, আমি একসময় শুরুতে বিনিয়োগ করেছিলাম। তখন অনেক ব্যবসায়ীই বিনিয়োগ করেছিলেন। আমিও তাদের মতো করেছি। কিন্তু এখন তেমন কিছু করি না।

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here