ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে ৭ নম্বরে বাংলাদেশ

:: ভোরের পাতা অনলাইন ::

টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে প্রথমবার আটে উঠার সুসংবাদ পেয়েছিল বাংলাদেশ। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই এবার ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি ঘটেছে বাংলাদেশের।

বুধবার (২ মে) ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের বার্ষিক আপডেট প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা আইসিসি। সেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলঙ্কাকে টপকে সপ্তম স্থানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। এদিকে ২০১৩ সালের পর আবার র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে এসেছে ইংল্যান্ড।

বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট এখন ৯৩। ওয়ানডেতে বাড়লেও টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে ২ রেটিং কমেছে বাংলাদেশের। ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে টাইগারদের অবস্থান আগের মতো দশ নম্বরে।

আইসিসির র‌্যাঙ্কিংয়ের এবারের হালনাগাদে বাদ হয়ে গেছে ২০১৪-১৫ মৌসুমের পারফরম্যান্স। ২০১৫-১৬ ও ২০১৬-১৭ মৌসুমের পারফরম্যান্স বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে ৫০ শতাংশ। সেখানে অবশ্য বড় দুঃসংবাদ বয়ে এনেছে ভারতের জন্য। নতুন র‌্যাঙ্কিংয়ে ১২৫ রেটিং পয়েন্ট ভারতকে হটিয়ে শীর্ষস্থানে উঠে এসেছে ইংল্যান্ড। ইংলিশদের চেয়ে ৩ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয়তে নেমে গেছে বিরাট কোহলির ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকা নেমে গেছে তৃতীয় স্থানে। তাদের রেটিং পয়েন্ট ১১৩। এছাড়া চতুর্থ, পঞ্চম ও ষষ্ঠ স্থানে আছে যথাক্রমে নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তান। সপ্তম স্থানে থাকা বাংলাদেশের পর শীর্ষ দশের শেষ তিনটি দল যথাক্রমে শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তান।

বাংলাদেশ ৯৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে আছে। এর আগে ২০১৫ সালের শুরুতে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করে প্রথমবারের মতো ওয়ানডের বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ের অষ্টম স্থানে উঠে এসেছিল মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার দল। তারপর আরো দাপটের ভারতকে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই হারিয়ে সপ্তম স্থান অধিকারে নিয়েছিল টাইগাররা। তারো অনেক পরে ২০১৭ এর মে মাসে প্রকাশিত আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ উন্নতি করে ষষ্ঠ স্থানে উঠে আসে টাইগাররা।

তবে খুব বেশিদিন এ অবস্থান ধরে রাখতে পারেনি তারা। ষষ্ঠই ছিল বাংলাদেশের জন্য সর্বোচ্চ।

 

অনলাইন/কে 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here