আন্দোলনকারীদের উপর হামলা নিয়ে মুখ খুললেন ঢাবির ছাত্রলীগ সভাপতি

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (৩০ জুন) সোয়া ১১টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

আন্দোলনকারীদের ওপর এই হামলার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের ওপর। তবে ছাত্রলীগ বলছে ভিন্ন কথা। এ প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সভাপতি আবিদ আল হোসাইন ফেসবুক পোস্টে জানান, ‘মেধাবী ভাই বোনেরা সৈকত নামের ছেলেটিকে চিনেন?’

কোটা সংস্কার‘চিনেন না। এত তাড়াতাড়ি ভুলে গেলেন। পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি সৈকত কোটা সংস্কার আন্দোলনে সবার সামনে ছিল, আহত হয়েছিল, সবাই তার সেই আন্দেলনরত ছবি প্রোফাইল পিকচার, কভার ফেটো দিয়েছিলেন। আর তাকেই ভুলে গেলেন।’

‘ভুলবেন এটাই স্বাভাবিক কারণ যারা কখনো আহত হন নাই পিছনে বসে ষড়যন্ত্র করে জামাত বিএনপির টাকা খেয়ে তাদের উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্য আন্দোলন অন্যদিকে নিয়ে যেতে চায় তখন সৈকতের মতো যারা সেদিন আহত হয়েছিলেন তারা নেতৃত্ব নিতে চাইবে এবং তা নিয়ে তাদের ভিতরে ঝামেলা হবে এটাই স্বাভাবিক।’

‘সৈকতের মতো সেদিন যারা আহত হয়েছিল তাদের কোনো মিটিং এ ডাকবেন না, তাদের খোঁজ খবর নিবেন না, বিএনপি জামাতের টাকা খেয়ে ষড়যন্ত্র করবেন, শিবির ঢুকে এই আন্দোলনের নেতৃত্ব দিবে তখন সৈকতরা যেমন মেনে নিবে না তখন আপনারাও মেনে নিবেন না আশা করি। নেতৃত্বের ও টাকার ভাগাভাগি নিয়ে সংঘরষ হবে এটাই স্বাভাবিক। তাই গুজবে কান দিবেন না। বিশ্বাস না হলে সৈকতের মুখেই শুনুন।’

1 মন্তব্য

  1. মন্তব্য:যদি এদাবী মেনেও নিই, তবুও কথা থাকে। দেশে আইন বলে কোন বস্তুকি নেই, যে কারো ইচ্ছা হলেই প্রতিপক্ষকে পেটাতে পারবে তার কোন বিচার হবপ না? এসব ছেলেভুলানো ছড়া কেটে পাপমোচন হয় না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here